• ঢাকা শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫

কাতার দখলের পরিকল্পনা ছিল সৌদি-আমিরাতের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ০৩ আগস্ট ২০১৮, ২০:১৮ | আপডেট : ০৩ আগস্ট ২০১৮, ২০:২১

সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত মধ্যপ্রাচ্যের অপর দেশ কাতারে হামলা চালিয়ে দখল করে নিতে চেয়েছিল। কিন্তু সাবেক মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন কাতারে হামলা না চালাতে সৌদি আরবকে বোঝাতে সক্ষম হয়। খবর স্পুটনিক নিউজের।

মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার জন্য সক্রিয় সদস্য ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাবেক দুই কর্মকর্তার বরাত দিয়ে অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার ওয়েবসাইট দ্য ইন্টারসেপ্ট জানিয়েছে, কাতারে হামলা ও দখল করে নিতে সৌদির নেতৃত্বাধীন পরিকল্পনায় সমর্থন জানায় আমিরাত। কিন্তু সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন তাদের সে পরিকল্পনায় বাধ সাধেন।

সন্ত্রাসীদের সমর্থনের অভিযোগ তুলে ২০১৭ সালে সৌদির নেতৃত্বে সংযুক্ত আরব আমিরাত, মিশর ও বাহরাইন কাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে। এমনকি আরব প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে স্থল, জল ও আকাশসীমা বন্ধ করে দেয়।

দ্য ইন্টারসেপ্ট জানাচ্ছে, ঠিক ওইসময় বা তার কিছুদিন পরে সৌদির ভেতর থাকা কাতারি গোয়েন্দা কর্মকর্তারা হামলার এই পরিকল্পনা জানতে পেরে টিলারসনকে তা অবহিত করেন। সেখানে বলা হয়েছে, এরপর টিলারসন সৌদি কর্মকর্তাদের হামলা না চালাতে আহ্বান জানিয়ে বেশ কিছু ফোনকল করেন।

এমনকি ‘কয়েক মাস পর’ যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের গোয়েন্দা কর্মকর্তারা ওই হামলা পরিকল্পনার বিষয়টি নিশ্চিত করার আগেই পদক্ষেপ নেন টিলারসন। দ্য ইন্টারসেপ্টের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সৌদি ও আমিরাতের যুবরাজরা মিলে ওই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন থেকে আর মাত্র কয়েক সপ্তাহ দূরে ছিলেন। তাদের পরিকল্পনা ছিল সৌদির স্থলবাহিনী আমিরাতের সহায়তায় কাতারের সীমান্ত অতিক্রম করে দোহার প্রায় ৭০ মাইল কাছাকাছি চলে যাবে।

দ্য ইন্টারসেপ্ট দাবি করেছে, সৌদি ও আমিরাতে ওই পরিকল্পনায় হস্তক্ষেপ করায় দেশ দুটির কর্মকর্তারা টিলারসনের ওপর চটে যান। আর হয়তো এই কারণে গেল বছরের ১ ডিসেম্বর ট্রাম্প প্রশাসন থেকে টিলারসনকে বিদায় নিতে হয়।

এ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়