• ঢাকা শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫

ফিলিস্তিনি কবিকে পাঁচ মাসের কারাদণ্ড দিলো ইসরায়েল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ০১ আগস্ট ২০১৮, ১০:৫৬ | আপডেট : ০১ আগস্ট ২০১৮, ১১:১৪

ফিলিস্তিনি কবি দারিন তাতুরকে মঙ্গলবার পাঁচ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন ইসরায়েলের নাজারেথ জেলা কোর্ট। সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টের মাধ্যমে সহিংসতা উসকে দেয়া ও সন্ত্রাসী সংগঠনকে সমর্থনের দায়ে গত মে মাসে ইসরায়েলি নাগরিক তাতুরকে অভিযুক্ত করা হয়। খবর হারিটজের।

সাজা ঘোষণার পর তাতুর বলেন, আমি রায়ে অবাক হইনি। আমি কারাদণ্ড আশা করছিলাম এবং এটাই ঘটেছে। আমি ন্যায়বিচার প্রত্যাশা করিনি। শুরু থেকে এই বিচারটি রাজনৈতিক ছিল। আমি বাক স্বাধীনতার পক্ষে কথা বলেছি এবং আমাকে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে কারণ আমি ফিলিস্তিনি।

৩৬ বছর বয়সী তাতুর নাজারেথের কাছে রেইনেহর গালিলি গ্রামের বাসিন্দা। ‘প্রতিরোধ করো, আমার মানুষ, তাদের প্রতিহত করো’ শিরোনামে একটি কবিতা ফেসবুকে পোস্ট করার পর গেলো ২০১৫ সালের অক্টোবরে অন্যান্যদের সঙ্গে তাকেও গ্রেপ্তার করা হয়।

তাতুরের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ ওই কবিতার একটি লাইন ব্যবহার করা হয়। সেই লাইনটি হচ্ছে- ‘আমি ‘শান্তিপূর্ণ সমাধানের’ কাছে হারবো না, কখনও আমার পতাকা নামবো না, যতক্ষণ না পর্যন্ত আমার ভূমি থেকে তাদের উৎখাত করি’

গেলো মে মাসে তাতুর বলেন- আমার বিরুদ্ধে বিচারকাজ বিশ্বের সঙ্গে থাকা পর্দা উন্মোচন করে দিয়েছে। পুরো বিশ্ব এখন আমার গল্প শুনবে। পুরো বিশ্ব জানবে ইসরায়েলের গণতন্ত্র কী। গণতন্ত্র কেবল ইহুদিদের জন্য। শুধু আরবদের কারাগারে পাঠানো হয়। আদালত বলেছে, আমি সন্ত্রাসবাদে অভিযুক্ত। এটা যদি সন্ত্রাসবাদ হয়, তাহলে আমি বিশ্বকে ভালোবাসার সন্ত্রাসবাদ উপহার দিচ্ছি।

আরও পড়ুন  :

এ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়