• ঢাকা রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫

ভারতে শিশু ধর্ষণে ফাঁসির বিধান রেখে লোকসভায় বিল পেশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ২৪ জুলাই ২০১৮, ১১:০৭
ফাইল ছবি

শিশু ধর্ষণে মত্যুদণ্ডের মতো কঠোর সাজার বিধান রাখার লক্ষ্যে আরও এক ধাপ এগিয়ে গেলো ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। সোমবার ভারতীয় দণ্ডবিধি ও ফৌজদারি আইন (সংশোধিত), ২০১৮ বিলটি লোকসভায় পেশ করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কিরেণ রিজিজু।

শিশুদের ওপর নির্যাতনের ঘটনা বেড়ে চলায় সম্প্রতি ধর্ষণকারীদের কঠোর সাজা দেয়ার প্রস্তাব দেয় নারী ও শিশুকল্যাণ মন্ত্রণালয়। ১২ বছরের নিচে শিশুদের ধর্ষণে শাস্তি মৃত্যুদণ্ড বা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড করার প্রস্তাব দেয়া হয় মানেকা গান্ধীর মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে। ওই প্রস্তাব মেনে নেয় নরেন্দ্র মোদি সরকার। জারি করা হয় অধ্যাদেশ।

কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত ছিল, চলতি বর্ষাকালীন অধিবেশনে ওই সংশোধনী বিলটি আনা হবে। সেই অনুযায়ী সোমবার বিলটি লোকসভায় পেশ করেন রিজিজু। বিলে একটি নতুন ধারা যোগ করে বলা হয়েছে, ১২ বছরের নিচে কোনও শিশুকে ধর্ষণ বা গণধর্ষণের দায়ে অন্তত ২০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড বা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং সর্বোচ্চ মৃত্যুদণ্ড দেয়া যাবে। এমন ক্ষেত্রে ধর্ষণকারীরা জামিনও পাবেন না।

জামিন অযোগ্য ধারা আনা হয়েছে ১৬ বছরের কম কাউকে ধর্ষণের ক্ষেত্রেও। সর্বোচ্চ সাজা যাবজ্জীবনের সুপারিশ করা হয়েছে। প্রাপ্তবয়স্ক নারীদের ধর্ষণে ন্যূনতম সাজা ৭ বছর থেকে বাড়িয়ে ১০ বছর করা হচ্ছে। অপরাধীদের দ্রুত শাস্তিবিধানে অভিযোগ জানানোর দুই মাসের মধ্যে ধর্ষণ মামলার তদন্ত এবং মামলার শুনানিও দুই মাসের মধ্যে শেষ করার ধারা এনেছে কেন্দ্র। অভিযুক্তদের পক্ষে করা পুনরাবেদনের শুনানিও ছয় মাসের মধ্যে শেষ করতে বলা হয়েছে সংশোধিত বিলে। লোকসভা ও রাজ্যসভায় সংশোধনী বিলটি পাশ হলেই আইন সংশোধন করা হবে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র।

এ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়