ব্রাজিলে বিশ্বের সবচেয়ে নিঃসঙ্গ মানুষ

প্রকাশ | ২১ জুলাই ২০১৮, ১২:১৫ | আপডেট: ২১ জুলাই ২০১৮, ১২:৩১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

একেবারেই বিরল এক ভিডিও ফুটেজে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর একজন মানুষকে দেখা যাচ্ছে, বলা হচ্ছে তিনিই বিশ্বের সবচেয়ে নিঃসঙ্গ মানুষ। ব্রাজিলের অ্যামাজনে ২২ বছর ধরে ৫০ বছর বয়সী মানুষটি একা বাস করছে। তার গোত্রের বাকিরা সবাই হত্যাকাণ্ডের শিকার হওয়ার পর থেকেই তার একাকী জীবনের শুরু। ব্রাজিল সরকারের ইনডেজিনাস এজেন্সি ফুনাই এই ভিডিওটি ধারণ করেছে। খবর বিবিসি বাংলার।

দূর থেকে তোলা ওই অস্পষ্ট ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, একজন পুরুষ একটি কুড়াল দিয়ে গাছ কাটছেন। ভিডিওটি বিশ্বের নানা স্থানে শেয়ার করা হয়েছে। কিন্তু এখানে আরও অনেক বিষয় রয়েছে যেগুলো আসলে খালি চোখে ধরা পড়ছে না।

কেন তার ভিডিও করা হলো?

ব্রাজিল সরকারের ইনডেজিনাস এজেন্সি ফুনাই বলছে, ১৯৯৬ থেকে তাকে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। এর পেছনে বেশ কয়েকটি কারণও রয়েছে বলে জানাচ্ছে তারা।

প্রথমত এটা নিশ্চিত হওয়া যে সে বেঁচে আছে, দ্বিতীয়ত কোন কোন এলাকায় সে ঘোরাফেরা করে সে স্থানগুলো চিহ্নিত করা।

ব্রাজিলের সংবিধান অনুযায়ী প্রত্যেকটি আদিবাসীদের জন্য ভূমির বা জমির অধিকার রয়েছে। লোকটির রনডোনিয়ার উত্তর-পশ্চিমের দিকে চলাচল রয়েছে।

তাই ওই এলাকাকে সংরক্ষিত করার জন্য সরকারের নতুন করে আদেশ দেয়ার প্রয়োজন ছিল, আর সে কারণেই ভিডিওটি ধারণ করা হয়।

এই ব্যক্তি সম্পর্কে আর কী জানা যাচ্ছে?

খুব কমই জানা যাচ্ছে এই লোকটি সম্পর্কে। যদিও তাকে নিয়ে নানা ধরনের গবেষণা প্রতিবেদন রয়েছে, সংবাদমাধ্যমে প্রতিবেদন হয়েছে কিন্তু বিস্তারিত কিছুই জানা যায়নি। বলা হচ্ছে, এই মানুষটার সঙ্গে বাইরে থেকে কখনও কেউ যোগাযোগ করতে পারেনি বা কথা বলেনি।

তার গোষ্ঠীর নাম কেউ জানে না এবং তারা কোন ভাষায় কথা বলতো সেটাও কেউ জানে না।

উল্লেখ্য, ১৯৯৫ সালে কৃষকরা তাদের উপর হামলা করলে এই ব্যক্তি ছাড়া তার গোত্রের সবাই নিহত হয়।

এ/ এমকে