• ঢাকা রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫

পাকিস্তানে নির্বাচনী সভায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৩২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ১৪ জুলাই ২০১৮, ১১:০২ | আপডেট : ১৪ জুলাই ২০১৮, ১২:২৯

পাকিস্তানে পৃথক দুটি নির্বাচনী সমাবেশে বোমা হামলার ঘটনায় কমপক্ষে ১৩২ জন নিহত হয়েছেন। ওই ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১৫০ জনের বেশি মানুষ। অস্থিতিশীল বেলুচিস্তানের প্রাদেশিক রাজধানী কোয়েটার কাছাকাছি মাসতুঙ্ক শহরে এক হামলায় বেলুচিস্তান আওয়ামী পার্টি (বিএপি) নেতাসহ ১২৮ জন নিহত হয়েছেন। একইদিন আফগানিস্তানের সীমান্তবর্তী পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় পেশোয়ারে আরেক নির্বাচনী সভায় বোমার বিস্ফোরণে চারজন নিহত হয়। খবর বিবিসির।

পুলিশ জানিয়েছে, মাসতুঙ্কে হতাহতদের মধ্যে একজন স্থানীয় প্রার্থীও রয়েছেন। পরে তথাকথিত ইসলামিক স্টেট (আইএস) এই হামলার দায় স্বীকার করে।

নিহতদের মধ্যে বেলুচিস্তানের প্রাদেশিক পরিষদের প্রার্থী সিরাজ রাইসানিও রয়েছেন বলে জানিয়েছেন, তার পরিবার। তিনি বেলুচিস্তান আওয়ামী পার্টির হয়ে নির্বাচনী লড়ছিলেন।

স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, একটি জনাকীর্ণ ভবনের ভেতর ওই প্রচারণা সমাবেশে হামলাকারী বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়।

স্থানীয় সাংবাদিক আত্তাহ উল্লাহ বার্তা সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন, ভবনের ভেতর মানুষের ছিন্নভিন্ন দেহ ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকতে দেখেছি। আহতরা ব্যথা ও কষ্টে কাঁদছিলেন।

আগামী ২৫ জুলাই পাকিস্তানে জাতীয় ও প্রাদেশিক নির্বাচন। তবে নির্বাচনকে সামনে রেখে ইতোমধ্যেই বেশ কয়েকটি সমাবেশে বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে। এর আগে মঙ্গলবার পেশোয়ারে আরেকটি সমাবেশে বোমা হামলায় আওয়ামী ন্যাশনাল পার্টি (এএনপি)-র নেতা হারুন বিলোরসহ ২২ জন নিহত হয়।

এ/ এমকে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়