• ঢাকা রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫

নওয়াজের ঠিকানা হয়েছে পাঞ্জাবের আদিয়ালা কারাগার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৪ জুলাই ২০১৮, ১০:৩০ | আপডেট : ১৪ জুলাই ২০১৮, ১০:৪৫
পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ ও তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজকে বিমানবন্দরে গ্রেপ্তারের পর সাবেক এই পাক প্রধানমন্ত্রীকে  হেলিকপ্টারে করে রাওয়ালপিন্ডির আদিয়ালা কারাগারে নেওয়া হয়েছে।  আর তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজকে আদিয়ালায় একটি গেস্ট হাউজকে সাব জেল ঘোষণা করে সেখানে রাখা হয়েছে।  জেলে নেওয়ার পর তাদের শারীরিক পরীক্ষা করা হয়। খবর জিওটিভি ডট কমের।

এর আগে লন্ডন থেকে দেশে ফিরে বিমানবন্দরে গ্রেপ্তার হন নওয়াজ শরীফ ও মরিয়ম নওয়াজ। গতকাল শুক্রবার স্থানীয় সময় রাত পৌনে ৯টার দিকে লাহোর বিমানবন্দরে নামার পর তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারের কিছুক্ষণ পরেই তাদেরকে একটি বিশেষ বিমানে করে ইসলামাবাদে নিয়ে যাওয়া হয়। শুক্রবার রাত ১০ টা ৩৫ মিনিটে তাদের ফ্লাইটটি নতুন ইসলামাবাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে বিপুল নিরাপত্তায় পুলিশ কনভয়ের মাধ্যমে পাহারা দিয়ে তাদেরকে পাঞ্জাবের রাওয়ালপিন্ডির আদিয়ালা কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : রাজনৈতিক চাপে নতিস্বীকার করায় ভারতের লজ্জিত হওয়া উচিত: লর্ড কার্লাইল
--------------------------------------------------------

এর আগেনওয়াজ শরিফের দেশে ফেরার খবরে শুক্রবার লাহোরে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করে স্থানীয় প্রশাসন। সেখানে অতিরিক্ত ১০ হাজার পুলিশ সদস্য মোতায়েনের পাশাপাশি বিকেল ৩টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত মোবাইল নেটওয়ার্ক বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়।

দুর্নীতির দায়ে দণ্ডপ্রাপ্ত সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীকে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট নির্বাচনে অযোগ্য ঘোষণা করেছেন। ফলে আগামী ২৫ জুলাই দেশটির সাধারণ নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না তিনি। তবে নির্বাচনে অংশ নিতে না পারলেও তার রাজনৈতিক দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ- নওয়াজের (পিএমএল-এন) কর্মীদের সংগঠিত করতেই দেশে ফেরার ঘোষণা দেন নওয়াজ।

গত সপ্তাহে পাকিস্তানের একটি আদালত নওয়াজ ও তার মেয়েকে দোষী সাব্যস্ত করে রায় ঘোষণা করেন। এতে নওয়াজকে ১০ বছর ও তার মেয়ে মরিয়মকে সাত বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

আদালত নওয়াজ-মরিয়মের সঙ্গে ক্যাপ্টেন সফদারকে এক বছরের কারাদণ্ড দেন। সফদার হলেন মরিয়মের স্বামী। পাকিস্তানের অ্যাকাউন্টিবিলিটি কোর্ট ওই রায় দেন। কারাদণ্ডাদেশের পাশাপাশি নওয়াজকে ৮০ লাখ ব্রিটিশ পাউন্ড ও মরিয়মকে ২০ লাখ ব্রিটিশ পাউন্ড জরিমানা করা হয়েছে। ক্যাপ্টেন সফদার গ্রেপ্তার হয়ে এখন কারাগারে।

কেএইচ/ এমকে  

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়