• ঢাকা সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫

নির্বাচনে হস্তক্ষেপের অভিযোগ অস্বীকার করল পাক সেনাবাহিনী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১২ জুলাই ২০১৮, ১৫:১০ | আপডেট : ১২ জুলাই ২০১৮, ১৫:১৪
আগামী ২৫ জুলাই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে পাকিস্তানের জাতীয় নির্বাচন। অভিযোগ উঠেছে আসন্ন নির্বাচনে ইমরান খানের নেতৃত্বাধীন তেহরিকে ইনসাফ দলকে বিজয়ী করার চেষ্টা করছে পাকিস্তানের সেনাবাহিনী। এবার এমন অভিযোগ অস্বীকার করলো পাক সেনা মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর। তিনি রাজধানী ইসলামাবাদের অদূরে রাওয়ালপিন্ডিতে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ অস্বীকার করেন। খবর জিওনিউজ।

পাক সেনাবাহিনী জানায়, আসন্ন নির্বাচনকে ‘স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষভাবে’ অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে ভোটের দিন সারাদেশে প্রায় তিন লাখ ৭১ হাজার সেনা মোতায়েন করা হবে। যা ২০১৩ সালে অনুষ্ঠিত ভোটে মোতায়েন সেনার চেয়ে তিনগুণ বেশি।

পাকিস্তানের আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের আগে প্রধান রাজনৈতিক দলগুলোর পক্ষ থেকে অভিযোগ উঠেছে, সেনাবাহিনী পাকিস্তানের রাজনীতিতে হস্তক্ষেপ করছে এবং তারা এ কাজে গণমাধ্যমকে এমনভাবে ব্যবহার করছে যাতে তেহরিকে ইনসাফ পার্টি ভোটে জয়ী হয়ে সরকার গঠন করতে পারে।

মেজর জেনারেল আসিফ গফুর বলেন, আমাদের কোনও রাজনৈতিক দল নেই। আমরা কারও আনুগত্য করি না। 

তিনি আরও বলেন, নির্বাচন কমিশনের অনুরোধে সাড়া দিয়ে সেনাবাহিনী আসন্ন ভোটের সময় সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এপি/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়