• ঢাকা শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫

আপনি কীভাবে শান্তির কথা বলছেন, মক্কার মসজিদের ইমামকে প্রশ্ন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ০৪ জুলাই ২০১৮, ১১:৪৭ | আপডেট : ০৪ জুলাই ২০১৮, ১২:৩৯

মক্কার পবিত্র গ্র্যান্ড মসজিদের ইমাম আব্দুর রহমান আল-সুদাইসকে প্রশ্নবাণে জর্জরিত করছেন এক ব্যক্তি এমনই একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গেছে। ভিডিওতে দেখা যায়, ইয়েমেন যুদ্ধ ও কাতার সংকটে জড়িত সৌদি আরবের অবস্থান নিয়ে নানা ধরনের প্রশ্ন করছেন ওই ব্যক্তি। খবর মিডল ইস্ট আইয়ের।

সুইজারল্যান্ডের জেনেভার একটি মসজিদে উপস্থিত মুসল্লিদের উদ্দেশে বক্তব্য দেয়ার সময় এ ধরনের প্রশ্নের মুখোমুখি হন সুদাইস। এসময় একজন শ্রোতা তাকে প্রশ্ন করেন, ইয়েমেন ও কাতারে আপনার ভাইদের অনাহারে ও একঘরে করে রেখে কীভাবে শান্তির বার্তা দিচ্ছেন?

‘আল্লাহ আপনার সহায় হোন’ বলে প্রশ্ন শুরু করেন ওই শ্রোতা। ওই অনুষ্ঠানে নিরাপত্তা নিয়ে বক্তব্য রাখছিলেন এই সৌদি ইমাম। কিন্তু ওই শ্রোতা প্রশ্ন শুরু করলে কোনও ধরনের জবাব দেয়া ছাড়াই অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করার চেষ্টা করেন সুদাইস, এসময় অনেকেই ওই প্রশ্নকর্তার আশেপাশে জড়ো হয়।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন  :  সকালে কংগ্রেস নেতা, বিকেলে বিজেপির মন্ত্রী!
--------------------------------------------------------

আলজেরীয় ওই ব্যক্তি আলজেরিয়া, মিশর ও তুরস্কে অভ্যুত্থানে সুদাইসের সমর্থন দেয়ায় তার সমালোচনা করে তাকে ‘মিথ্যার প্রচারক’ হিসেবে বর্ণনা করেন। তার এই প্রশ্ন করার ভিডিও দ্রুত সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে।

যদিও আলজেরীয় ওই ব্যক্তির প্রশ্ন এড়িয়ে গেছেন সুদাইস। কিন্তু এর আগেও নিজের দৃষ্টিভঙ্গির জন্য সমালোচিত হয়েছেন তিনি।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে নিউইয়র্ক সফরে গিয়ে সৌদি আরব ও যুক্তরাষ্ট্র ‘বিশ্বে শান্তি ছড়াচ্ছে’ বলে মন্তব্য করে বিতর্কের মুখে পড়েন সুদাইস।

সৌদির টেলিভিশন চ্যানেল আল-এখবারিয়াকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সুদাইস বলেন, সৌদি আরব ও যুক্তরাষ্ট্র ‘বিশ্বের প্রভাব সৃষ্টিকারী দুই দেশ’। দেশ দুটি নিরাপত্তা, শান্তি ও সমৃদ্ধির পথে বিশ্বকে পরিচালিত করছে। তিনি বলেন, নিরাপত্তা ও বিশ্ব শান্তির ক্ষেত্রে একই ধরনের বোঝাপড়ায় পৌঁছানো এবং সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াই করা উচিত দুই দেশের।

ওই আলজেরীয় ব্যক্তি সুদাইসের কাছে এ বিষয়টি তুলে ধরে প্রশ্ন করেন। তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, কীভাবে যুক্তরাষ্ট্র ও সৌদি আরব বিশ্ব শান্তি পরিচালনা এবং শান্তিকামী মানুষের পাশে অবস্থান নিতে পারে?

ইয়েমেনের নির্বাসিত প্রেসিডেন্ট আব্দ রাব্বু মানসুর হাদির সমর্থনে দেশটিতে ২০১৫ সাল থেকে সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ইরান সমর্থিত হুথি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে হামলা চালিয়ে আসছে। ওই বছরের মার্চ থেকে শুরু হওয়া এই সামরিক অভিযানে এখন পর্যন্ত ১০ হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন। আরও হাজার হাজার মানুষ কলেরায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

এছাড়া কাতার সন্ত্রাসীদের অর্থায়ন করছে এমন অভিযোগ তুলে দেশটির সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন ও মিশর। এছাড়া গেলো বছরের জুনে দেশটির ওপর স্থল ও আকাশপথে অবরোধ আরোপ করে।

 

আরও পড়ুন  : 

     মাঠে-বাইরে পরিচ্ছন্নতায় জাপানের অনন্য দৃষ্টান্ত

এ/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়