• ঢাকা বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫

ইংল্যান্ড দলের ১৮ হাজার টাকার পোশাকের মজুরি ১৮৮ টাকা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ০৬ জুন ২০১৮, ১০:৪১ | আপডেট : ০৬ জুন ২০১৮, ১১:৪১
২০১৮ ফুটবল বিশ্বকাপের পোশাক পরে মডেল হয়েছেন মার্কাস রাশফোর্ড
রাশিয়া ফুটবল বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড দলের পোশাক আন্তর্জাতিক বিখ্যাত ব্র্যান্ড নাইকি এর মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে তৈরি করা হয়েছে। নাইকি ওই পোশাক ১৬০ পাউন্ড বা প্রায় ১৮ হাজার টাকায় বিক্রি করলেও এর উৎপাদনে বাংলাদেশের পোশাক শ্রমিকরা মজুরি পেয়েছেন ঘণ্টায় মাত্র ২৩ টাকা (২১ পেন্স) । আর এমন তথ্য দিয়েই খবর প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ পত্রিকা দ্য টেলিগ্রাফ।

ইংল্যান্ড ফুটবল দলের এই ব্যয়বহুল অফিসিয়াল পোশাক বাংলাদেশ সরকারের সংরক্ষিত এলাকার ভেতর একটি পোশাক কারখানা থেকে তৈরি করা হয়েছে। যেখানে নারী পোশাক শ্রমিকরা মাত্র ১৮৮ টাকা (১.৬৮ পাউন্ড) দৈনিক মজুরিতে কাজ করেন।

দ্য টেলিগ্রাফ বলছে, রাজধানী ঢাকার অদূরে সাভারে ওই নারী পোশাক শ্রমিকরা এই পোশাক বানাতে সপ্তাহে ৬০ ঘণ্টা করে কাজ করেছেন।

ডিজিটাল, কালচার, মিডিয়া অ্যান্ড স্পোর্টস কমিটির একজন লেবার সদস্য ব্রিটিশ এমপি জো স্টিভেন্স এ ঘটনায় তদন্তের আহ্বান জানিয়েছেন।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : পবিত্র শবে কদরের ছুটি ১৩ জুন
--------------------------------------------------------

তিনি বলেন, বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড দলের পোশাকসহ যেকোনও কর্মকাণ্ডে গভীরভাবে দেখভাল করা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (এফএ)-এর একটি দায়িত্ব, যা আমাদের দেশের গর্বের বিষয়। কিন্তু যদি কোনও শ্রমিককে শোষণ করে এটা করা হয়, তাহলে আমাদের গর্বিত হওয়া বেশ কঠিন হয়ে যাবে।

ক্লিন ক্লোথস ক্যাম্পেইন বলছে, তাদের মজুরি এমনকি মৌলিক প্রয়োজন মেটানোর জন্য যথেষ্ট নয়। খুব কম সংখ্যক শ্রমিকই তাদের এবং তাদের পরিবারকে ভালো জীবন দিতে সক্ষম।

তারা বলছে, নাইকি যেখানে ভক্ত সমর্থকদের কাছ থেকে অনেক দামে পোশাক বিক্রি করছে সেখানে শ্রমিকরা প্রায় অনাহারে মারা যাওয়ার মতো মজুরি পাচ্ছেন। তাই সমর্থকদের উচিত নাইকির এ ধরনের শোষণমূলক ব্যবসার ধরন বদলানোর দাবি জানানো।

বাংলাদেশের একটি গার্মেন্টসে কাজ করছেন নারী পোশাক শ্রমিকরা

বাংলাদেশের পোশাক শ্রমিকরা ন্যূনতম মজুরি পান মাসে ৫,৩০০ টাকা বা ৪৭ পাউন্ড।

বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড দলের জন্য বুলগেরিয়া থেকে স্ট্রিপ মোজা বানানো নাইকি বলছে, তারা ‘নৈতিক ও নিয়ম মেনে’ ব্যবসা করে। তাই পণ্য সরবরাহকারীদের অবশ্যই ‘স্থানীয় ন্যূনতম বা বিদ্যমান মজুরি’ দিতে হবে।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে ইংল্যান্ডের ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন ৪০০ মিলিয়ন পাউন্ডে নাইকির সঙ্গে করা চুক্তি আরও ১২ বছরের জন্য বৃদ্ধি করে।

আরও পড়ুন :

এ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়