• ঢাকা সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫

পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থার সাবেক প্রধানের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ২৯ মে ২০১৮, ২২:৫১
পাকিস্তানের সেনাবাহিনী দেশটির গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই-এর সাবেক প্রধান লে. জেনারেল আসাদ দুররানির দেশত্যাগের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। একইসঙ্গে ভারতের গোয়েন্দা সংস্থা র- এর সাবেক প্রধান অমরজিৎ সিং দুলাতের সঙ্গে মিলে দুররানি লেখা ‘স্পাই ক্রনিকলস: র, আইএসআই অ্যান্ড দ্য ইলুসন অব পিস’ বইয়ের ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে পাক সেনাবাহিনী। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

 ওই বই লেখার ঘটনায় সেনাবাহিনীর আচরণ বিধি লঙ্ঘিত হয়েছে বলেও দাবি করা হয়েছে পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে। পাকিস্তান সেনাবাহিনীর আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ (আইএসপিআর) বিভাগের প্রধান মেজর জেনারেল আসিফ গফুর সোমবার এক টুইট করেন। ওই টুইট তিনি দুররানির নাম এক্সিট কন্ট্রোল লিস্ট (ইসিএল)-এ তালিকাভুক্ত করতে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতি আহ্বান জানান যাতে সাবেক এই গোয়েন্দা প্রধান দেশত্যাগ করতে না পারেন।

মেজর জেনারেল আসিফ বলেন, দুররানিকে আজ সেনা সদরদপ্তরে ডেকে পাঠানো হয়েছিল। সেখানে সম্প্রতি প্রকাশ হওয়া তার বইয়ের ব্যাপারে দুররানির অবস্থান জানতে চাওয়া হয়েছে। এছাড়া একজন লে. জেনারেলের নেতৃত্বে একটি আনুষ্ঠানিক আদালতে ওই বইয়ের বিষয়ে তদন্তের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

তবে ওই বইয়ের কোন অংশে সেনা আচরণ বিধি লঙ্ঘিত হয়েছে সে বিষয়ে বিস্তারিত জানায়নি আইএসপিআর।

মিডিয়ার খবরে জানা গেছে, সাবেক পাক প্রধানমন্ত্রী ইউসুফ রাজা গিলানি উত্তরপশ্চিমাঞ্চলীয় অ্যাবোটাবাদে ওসামা বিন লাদেনের বিরুদ্ধে ইউএস নেভি সিলের অভিযানের বিষয়ে অবগত ছিলেন। এমনকি ওই অভিযানের আগে ইসলামাবাদ-ওয়াশিংটন একটি সমঝোতাও করে বলে দুররানির বইয়ে দাবি করা হয়েছে।

এছাড়া গুপ্তচরবৃত্তি ও ধ্বংসাত্মক কর্মকাণ্ডের অভিযোগে সেনা কোর্টে সাজা পাওয়া ভারতীয় নাগরিক কুলভূষণ যাদবের মামলারও অপব্যবহার হয়েছে।

উল্লেখ্য, জেনারেল দুররানি ১৯৯০ থেকে ১৯৯২ সাল পর্যন্ত পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই-র প্রধান ছিলেন।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়