• ঢাকা শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫

পাকিস্তানে দাবদাহে ৬৫ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ২২ মে ২০১৮, ১৯:২৩ | আপডেট : ২২ মে ২০১৮, ১৯:২৬
সূর্যের আলো এড়াতে করাচিতে একজন মা তার শিশুর মাথায় তোয়ালে দিয়ে রেখেছেন
পাকিস্তানের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর করাচিতে প্রচণ্ড দাবদাহে গেলো তিন দিনে ৬৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। আজ মঙ্গলবার একটি সামাজিক উন্নয়নমূলক প্রতিষ্ঠান এ খবর জানিয়ে আরও মৃত্যুর আশঙ্কা করছে। খবর রয়টার্সের।

এমন এক সময় পাকিস্তানে দাবদাহ দেখা দিলো যখন চরম বিদ্যুৎ সঙ্কট ও রমজানের রোযা পালন করছেন দেশটির ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা। স্থানীয় মিডিয়া জানায়, সোমবার সেখানে তাপমাত্রা ৪৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত উঠে যায়।

পাকিস্তানের সর্ববৃহৎ শহর করাচিতে মর্গ ও অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস পরিচালনাকারী ইধি ফাউন্ডেশনের প্রধান ফয়সাল ইধি জানিয়েছেন, শহরের দারিদ্র্যপীড়িত এলাকায় অধিকাংশ মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।

তিনি বলেন, গেলো তিনদিনে ৬৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। আমাদের হিমাগারে ওই মৃতদেহগুলো রয়েছে এবং চিকিৎসকরা জানিয়েছেন যে প্রচণ্ড গরমে তাদের মৃত্যু হয়েছে।

তবে এ বিষয়ে সরকারের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। কিন্তু সিন্ধু প্রদেশের স্বাস্থ্য সচিব ফজলুল্লাহ পেচুহু বলেছেন, কেউই দাবদাহে মারা যায়নি।

তিনি বলেন, তাদের মৃত্যু দাবদাহ বা অন্য কোনো কারণে হয়েছে কিনা সেটি কেবল চিকিৎসক এবং হাসপাতালই বলতে পারে। করাচিতে প্রচণ্ড গরমের কারণে ওই ব্যক্তিদের মৃত্যু হয়েছে এমন দাবি আমি সুনিশ্চিতভাবে প্রত্যাখ্যান করছি।

তবে প্রাদেশিক সরকার সেখান বাসিন্দাদের নিশ্চিত করেছে, ২০১৫ সালে পুনরাবৃত্তি হবে না। একইসঙ্গে আক্রান্ত ব্যক্তিদের দ্রুত চিকিৎসা নিশ্চিত করতে কাজ করে যাচ্ছেন তারা।

এর আগে ২০১৫ সালে করাচিতে প্রচণ্ড দাবদাহে কমপক্ষে এক হাজার তিনশ’ জনের মৃত্যু হয়। যাদের অধিকাংশই বয়োজ্যেষ্ঠ এবং অসুস্থ ব্যক্তি। ওইসময় মর্গগুলোতে মৃতদেহ রাখার মতো জায়গা ছিল না।

এ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়