• ঢাকা শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫

যাত্রীবাহী বিমান ভূপাতিত করার নির্দেশ দিয়েছিলেন পুতিন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ১২ মার্চ ২০১৮, ১০:৩৬ | আপডেট : ১২ মার্চ ২০১৮, ১০:৫৭
যাত্রীবাহী একটি বিমান ব্যবহার করে হামলা চালানো হতে পারে এমন আশঙ্কায় সেটিকে গুলি করার অনুমতি দিয়েছিলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ওই বিমানটিতে বোমা বহন করা হচ্ছিল এবং সেটি ব্যবহার করে ২০১৪ সালের সোচি শীতকালীন অলিম্পিকে হামলা করা হবে এমন খবরের পর তিনি এ আদেশ দেন। খবর বিবিসির।

অনলাইনে পোস্ট করা দুই ঘণ্টার একটি ভিডিওতে এমনটাই জানিয়েছেন পুতিন। তিনি বলেন, অলিম্পিক শুরুর ঠিক আগ-মুর্হূতে আমাকে বলা হয়েছিল ইউক্রেন থেকে তুরস্কগামী একটি বিমান হাইজ্যাক করা হয়েছে।

তবে পরে জানতে পারি সেটি ভুল বার্তা ছিল। তাই বিমানটিকে ভূপাতিত করা হয়নি।

পুতিন বলেন, আমাকে বলা হয়েছিল, ইউক্রেন থেকে ইস্তাম্বুলগামী একটি বিমান হাইজ্যাক করা হয়েছে। ছিনতাইকারীরা সোচিতে অবতরণের অনুমতি চাইছে।

তুরস্কের পেগাসাস এয়ারলাইন্সের বোয়িং ৭৩৭-৮০০ বিমানের পাইলটরা জানান, আরোহী একজনের কাছে একটি বোমা রয়েছে এবং সে বিমানটি সোচিতে নিয়ে যাওয়ার হুমকি দিচ্ছে। বিমানটিতে ১১০ জন যাত্রী ছিল।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট বলেন, নিরাপত্তা কর্মকর্তারা তাকে বলেছিলেন এ ধরনের পরিস্থিতিতে জরুরি প্রক্রিয়া হচ্ছে বিমানটি ভূপাতিত করা। আমি তাদের বলেছিলাম, পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করুন।

কিন্তু এটি একটি ভুল বার্তা ছিল জানিয়ে কয়েক মিনিট পরই আমি একটি কল পাই।

ওই ঘটনার কিছুক্ষণ পর অলিম্পিক কর্মকর্তাদের নিয়ে সোচির অলিম্পিক ভেন্যুতে পৌঁছান পুতিন।

এদিকে ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ পুতিনের এ বক্তব্যের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এমন এক সময় এ ভিডিও প্রকাশ করা হলো যখন আর প্রায় এক সপ্তাহ পর রাশিয়ায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হবে। নির্বাচনের আগে যে ধরনের পূর্বাভাস পাওয়া যাচ্ছে তাতে তিনি চতুর্থ দফায় দেশটিতে ক্ষমতায় আসবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন:

এ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়