• ঢাকা বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫

বোতলের ভেতর ১৩২ বছরের পুরোনো চিরকুট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ০৮ মার্চ ২০১৮, ১৪:০৮ | আপডেট : ০৮ মার্চ ২০১৮, ১৭:০৬
৯ ইঞ্চি লম্বা এবং ৩ ইঞ্চি চওড়া একটি বোতল। বোতলের ভেতর ১৩২ বছরের পুরোনো একটি বার্তা। আর যেটিকে বলা হচ্ছে সবচেয়ে প্রাচীনতম বার্তার একটি। জানুয়ারি মাসে অস্ট্রেলিয়ার উত্তর পার্থ সৈকতে সন্ধান মিলল একটি বার্তাসহ বোতলের। খবর চ্যানেল নিউজ এশিয়া।

চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে উত্তর পার্থের সৈকতে ছেলের প্রেমিকার সঙ্গে ঘুরতে গিয়েছিলেন টোনা ইলম্যান নামে এক মহিলা। হাঁটতে হাঁটতে হঠাৎ তার চোখে পড়ে বালিতে ঢেকে থাকা কালো-সবুজ রঙের একটি বোতলে। প্রায় ৯ ইঞ্চি লম্বা এবং ৩ ইঞ্চি চওড়া ওই বোতলটিকে দেখে পছন্দ হয়ে যায় ইলম্যানের। তখনই বাড়ির শেলফে ওই বোতলটি সাজিয়ে রাখার সিদ্ধান্তও নিয়ে ফেলেন তিনি। এরপর বাড়িতে সেই বোতল নিয়ে এসে ছিপি খুলতেই দেখেন ভিতরে রয়েছে একটা ভাঁজ করা হলুদ রঙের চিরকুট। দেখা যায় সেই চিরকুটে জার্মান ভাষায় কিছু শব্দ রয়েছে। তবে, ওই কাগজে পাওয়া তথ্যগুলির মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল তারিখ এবং জাহাজের নাম। দিনটি ছিল ১৮৮৬, ১২ জুন। আর জাহাজের নাম 'পাওলা'।

বিষয়টি পশ্চিম অস্ট্রেলিয়া জাদুঘরে জানান ইলম্যান। বর্তমানে বোতলটি রাখা হয়েছে ওই জাদুঘরে।

এ নিয়ে বিশেষজ্ঞরা বলেন, সমুদ্রের ঢেউ নিয়ে গবেষণার জন্য জার্মান নাভাল অবজারভেটরির একদল বিশেষজ্ঞ ভারত মহাসাগরে পাড়ি দেন। চিঠিতে লেখা রয়েছে, সমুদ্রের ঢেউ এবং ধরন এখনও পর্যন্ত বোঝা যাচ্ছে না। বিভিন্ন তথ্য ঘেঁটে বোঝা যায় সুদূরপ্রসারী গবেষণা প্রয়োজন।

বিশেষজ্ঞরা আরও জানান, বোতল বন্দি বার্তা এভাবে ভাসিয়ে দেয়ার কথা প্রথম বলেছিলেন জার্মান বিজ্ঞানী জর্জ ভন নুমায়ের। ১৮৬৪ থেকে ১৯৩৩ সাল পর্যন্ত সময়কালে এমন অনেক বোতলে ভাসিয়ে দিয়ে বার্তা আদানপ্রদান করা হত। পাওলা জাহাজের ক্যাপ্টেনও আশা করেছিলেন তার এই বার্তা ঠিক পৌঁছে যাবে জার্মান দূতাবাসে। কিন্তু এক শতক পর তা শেষমেশ পৌঁছেছে অস্ট্রেলিয়ার পার্থেতে।

আরও পড়ুন:

এপি/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়