• ঢাকা শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫

আজীবন ক্ষমতায় থাকতে সংবিধান সংশোধন করছেন প্রেসিডেন্ট শি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০৯:২০ | আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১২:৪১
চীনের ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টি দেশটির সংবিধান সংশোধনের সুপারিশ করেছে। সংবিধান সংশোধন করা হলে তৃতীয় দফায় দেশটির রাজপাটে বসতে পারবেন প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। খবর বিবিসি, সিএনএনের।

রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত সংবাদ সংস্থা শিনহুয়া বলছে, ‘প্রেসিডেন্ট ও ভাইস প্রেসিডেন্ট দুই দফার বেশি’ ক্ষমতায় থাকতে পারবে না সংবিধানের এমন ধারা বাতিলের প্রস্তাব দিয়েছে ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টি।

তবে দেশটির পার্লামেন্ট ন্যাশনাল পিপলস কংগ্রেসে (এনপিসি) আগামী মার্চের অধিবেশনে ওই সংশোধন অনুমোদন পেতে হবে। কিন্তু এটি অনুমোদন পেতে খুব একটা সমস্যা হবে না। কারণ ওই অর্থে পার্লামেন্টের স্বাধীনভাবে কিছু করার ক্ষমতা নেই।

এদিকে নতুন এই সংশোধনী কার্যকর হওয়ার পর অনির্দিষ্টকালের জন্য চীনের রাষ্ট্র প্রধান হিসেবে থাকতে পারবেন প্রেসিডেন্ট শি। গেলো ২০ বছর ধরে দেশটিতে তার পূর্বসূরিরা যে পাঁচ বছর মেয়াদে ক্ষমতায় থাকার ঐতিহ্য চালু করেছিলেন প্রেসিডেন্ট শি সেটি থেকে বেরিয়ে আসতে চাইছেন।

২০০৪ সালের পর এই প্রথম সংবিধান সংশোধন করা হবে। আর এটির ঘোষণা গেলো বছরের ডিসেম্বরেই দেয়া হয়েছিল। বিশ্লেষকরা তখন ধারণা করছিলেন, দুর্নীতি বিরোধী ন্যাশনাল সুপারভিশন কমিশন (এনএসসি) গঠনের জন্য সংবিধান সংশোধন করা হবে।

এর আগে চলতি বছরের জানুয়ারিতে দলের সর্বোচ্চ ফোরাম পার্টি গঠনতন্ত্রে ‘শি জিনপিংয়ের মতাদর্শ’ অন্তর্ভুক্ত করার প্রস্তাব দেয়। এর ফলে মাও সেতুংয়ের পর তিনিই পার্টিতে সবচেয়ে ক্ষমতাধর ব্যক্তি হয়ে ওঠেন।

তবে প্রেসিডেন্ট শি যে আজীবন ক্ষমতায় থাকার পরিকল্পনা করছেন সেই আশঙ্কা আগেই দেখা দিয়েছিল। কেননা গেলো বছরের অক্টোবরে কমিউনিস্ট পার্টির কংগ্রেসে সুস্পষ্ট উত্তরসূরি দিতে ব্যর্থ হন প্রেসিডেন্ট শি। যার ফলে ১০ বছর পার্টির দলীয় প্রধানের পদে থাকার যে অলিখিত নিয়ম ছিল সেটি যে তিনি ভাঙছেন তা তখনই স্পষ্ট হয়ে উঠেছিল।

আরও পড়ুন:

এ/এসএস 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়