আলামত নষ্টে বুলডোজার চালাচ্ছে মিয়ানমার: এইচআরডব্লিউ

প্রকাশ | ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২২:১৯ | আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০৮:৫৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মিয়ানমার সরকার রাখাইনের রোহিঙ্গাদের বাড়িঘরের ধ্বংসাবশেষ মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দিচ্ছে। জানিয়েছে মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ)।

স্যাটেলাইট থেকে ধারণকৃত দৃশ্যে দেখা গেছে, রোহিঙ্গা গ্রামগুলো বুলডোজার চালিয়ে আলামত নষ্ট করা হচ্ছে। কলম্বোভিত্তিক ডিজিটাল গ্লোব শুক্রবার এমন দৃশ্যের ছবি প্রকাশ করেছে বলে বার্তা সংস্থা এপিতে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে।

ওইসব ছবিতে দেখা গেছে, ডজনখানেক বাড়িঘরের ধ্বংসাবশেষ বুলডোজার দিয়ে মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দেয়া হয়েছে। এসব ছবি বিশ্লেষণ করে উদ্বেগের কথা জানিয়েছে এইচআরডব্লিউ।

সংস্থাটি বলছে, স্যাটেলাইটের ছবিতে দেখা গেছে, গেলো আগস্ট থেকে এ পর্যন্ত অন্তত ৩৬২টি রোহিঙ্গা গ্রাম পূর্ণ বা আংশিক ধ্বংসের প্রমাণ মিলেছে।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন: পাকিস্তানের ওপর ‘নাখোশ’ ট্রাম্প
--------------------------------------------------------

এইচআরডব্লিউ’র এশিয়া বিষয়ক পরিচালক ব্র্যাড অ্যাডামস এক বিবৃতিতে বলেন, এসব গ্রাম ছিল রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সেনাবাহিনীর দমন অভিযানের ভয়াবহতার প্রমাণ। জাতিসংঘের বিশেষজ্ঞরা যাতে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনার আলামত সংগ্রহ করতে পারেন এবং দোষীদের যাতে যথাযথভাবে শনাক্ত করা যায়, সেজন্যই এসব গ্রাম ওই অবস্থায় সংরক্ষণ করা প্রয়োজন ছিল। কিন্তু দেখা যাচ্ছে এক সময় সেখানে যে রোহিঙ্গাদের বসবাস ছিল সেটি এবং আইনি অধিকারের চিহ্নও বুলডোজার দিয়ে মুছে ফেলা হচ্ছে। তবে এইচআরডব্লিউ’র প্রতিবেদন নিয়ে মুখ খুলতে রাজি হয়নি মিয়ানমার সরকার।

উল্লেখ্য, গেলো বছরের ২৫ আগস্ট রাখাইনে সেনা অভিযানের পরিপ্রেক্ষিতে প্রায় সাত লাখ রোহিঙ্গা প্রতিবেশি বাংলাদেশে পালিয়ে আসে।

আরও পড়ুন:

এ/পি