• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫

মুরগির অভাবে কেএফসির কয়েকশ’ দোকান বন্ধ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৯:১৩ | আপডেট : ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৯:২২
যুক্তরাজ্যে চটজলদি খাবারের দোকান কেএফসি'র সাড়ে পাঁচশর বেশি দোকান বন্ধ হয়ে গেছে। কারণ হিসেবে প্রতিষ্ঠানটি বলছে, তাদের মুরগির মজুত শেষ হয়ে গেছে। খবর বিবিসির।

কেনটাকি ফ্রাইড চিকেন বা কেএফসির ওয়েবসাইটে বলা হচ্ছে, যুক্তরাজ্য ও আয়ারল্যান্ড প্রজাতন্ত্রে তাদের সবমিলিয়ে ৯০০টি দোকান রয়েছে। এগুলোর মধ্যে সোমবার রাত নয়টা নাগাদ ৫৭৫টিই বন্ধ হয়ে গেছে।

গেলো ১৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত কেএফসির জন্য মুরগি সরবরাহ করত খাদ্য বিতরণের জন্য বিশেষায়িত একটি প্রতিষ্ঠান বিডভেস্ট।

কিন্তু ওই চুক্তি যখন ডিএইচএলকে দেয়া হলো, তারপর থেকেই বিভিন্ন দোকানে মুরগির মজুত শেষ হয়ে যেতে থাকল।

জিএমবি ইউনিয়নের একজন কর্মকর্তা মিক রিক্স বলছেন, একটি বিশেষায়িত প্রতিষ্ঠান ছেড়ে ডিএইচএলকে এ দায়িত্ব দেয়াটা মারাত্মক ভুল হয়েছে।

কিছু সংবাদ মাধ্যমের রিপোর্টে বলা হয়েছে যে, মুরগির সরবরাহ শেষ হয়ে যাওয়ার জন্য তাদের প্রতিদিন ১০ লাখ পাউন্ড করে ক্ষতি হচ্ছে। তবে এ সংখ্যাটা আনুমানিক।

কেএফসির অনেক দোকানে কর্মচারীদের এ জন্য ছুটি নিতে উৎসাহিত করা হয়েছে। তবে তাদের বাধ্য করা হবে না বলে জানাচ্ছে কোম্পানিটি।

ডিএইচএল এ জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছে।  তারা বলছে, 'অপারেশনাল কারণে' মুরগির সরবরাহ বিঘ্নিত হয়েছে। তবে পরিস্থিতি সামাল চেষ্টা করছে ডিএইচএল।

আরও পড়ুন:

এ/এএ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়