• ঢাকা বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

অভিবাসী যাচাই-বাছাই কেন্দ্র চালুর নির্দেশ ট্রাম্পের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১০:৫০ | আপডেট : ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১০:৫৭
নতুন একটি জাতীয় ভেটিং সেন্টার বা যাচাই-বাছাই কেন্দ্র চালু সংক্রান্ত এক জাতীয় নিরাপত্তা স্মারকে সই করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর ফলে দেশটির জন্য হুমকি এমন ব্যক্তিদের ওপর আরও বেশি নজরদারি করতে পারবে হোমল্যান্ড সিকিউরিটি। মঙ্গলবার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ওই স্মারকে স্বাক্ষর করেন। খবর সিএনএন, ভয়েস অব আমেরিকা ও পলিটিকোর।

ওই স্মারকে ট্রাম্প বলেন, সীমান্ত ও অভিবাসী নিরাপত্তা যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তা ও উন্নতির জন্য খুব জরুরি। তাই আমি একটি জাতীয় ভেটিং সেন্টার প্রতিষ্ঠার নির্দেশ দিচ্ছি। যারা জাতীয় ভেটিং পরিচালনা বোর্ড ও জাতীয় ভেটিং এন্টারপ্রাইজের মধ্যে সমন্বয় করবে।

এদিকে সিএনএন বলছে, এই সেন্টারটি আগামী ছয় মাসের মধ্যে চালু হবে। তবে এ জন্য নতুন কোনো কর্তৃপক্ষ গঠন করা হবে না বা কেন্দ্রটি স্থাপনের জন্য নতুন তহবিলও আহ্বান করা হবে না। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, অ্যাটর্নি জেনারেলের অফিস ও গোয়েন্দা সংস্থাগুলো এটির জন্য যৌথভাবে কাজ করবে।

এর মাধ্যমে ‘জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি এমন ব্যক্তিরা যুক্তরাষ্ট্রে ঢুকতে চাইলে তাদের তথ্য আরও ভালোভাবে যাচাই’ করতে পারবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। বলেছেন হোয়াইট হাউজের মুখপাত্র সারাহ হুকাবি স্যান্ডার্স।

বর্তমান ভেটিং ব্যবস্থাকে ‘অস্থায়ী’ উল্লেখ করে স্যান্ডার্স বলেন, হুমকি মোকাবেলায় সেটি সরকারের সক্ষমতার চেয়ে অনেক পিছিয়ে। এর আগে ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রে চরমপন্থী ঢোকা বন্ধে ‘কঠোর ভেটিং’সিস্টেম চালুর ব্যাপারে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন।

যুক্তরাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কার্স্টজেন নিয়েলসেন বলেছেন, নতুন এই সেন্টারের মাধ্যমে কর্মকর্তারা ‘গোয়েন্দা ও নিরাপত্তা বাহিনীর তথ্য এক জায়গা থেকেই পাবেন।’

শুরু থেকেই অভিবাসীদের ব্যাপারে কঠোর মনোভাব পোষণ করেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এমনকি তিনি অভিবাসীদের দেশটির নিরাপত্তার জন্য হুমকিও মনে করেন।

এ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়