• ঢাকা বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫

নাচের তালে গাড়ি নিয়ন্ত্রণ করেন ট্র্যাফিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ২৯ ডিসেম্বর ২০১৭, ১২:১৩ | আপডেট : ২৯ ডিসেম্বর ২০১৭, ১২:৩৫
রণজিৎ সিং ভারতের ইন্দোরের একজন ট্র্যাফিক পুলিশ। যানবাহন নিয়ন্ত্রণে তিনি অন্য ট্র্যাফিক পুলিশের চেয়ে বেশ ভিন্ন। কারণ তিনি ট্র্যাফিক নিয়ন্ত্রণ করেন নেচে নেচে। প্রয়াত পপ কিংবদন্তি মাইকেল জ্যাকসনের ‘মুনওয়াকিং’য়ের ঢংয়ে যানজট সামলান তিনি। খবর বিবিসি।

ব্যতিক্রমী দক্ষতায় যানজট সামাল দেওয়া এ মানুষটি আলোড়ন ফেলেছেন ভারতজুড়ে। ২০ লাখ লোকের শহর ইন্দোরের ব্যস্ততম রাস্তায় রণজিং সিং ‘মুনওয়াকিং’ নাচের ঢংয়ে গাড়ি থামার নির্দেশ দেন, তখন কোনো চালকই তা এড়াতে পারেন না। অন্তত চোখ এড়িয়ে যাওয়ার কোনো সুযোগই নেই।

রণজিৎ সিংয়ের বলেন, শুরুতে তার নৃত্যসুলভ ট্র্যাফিক পুলিশিং দেখে মানুষ অবাক হতো। কেউ কেউ বিরক্তও হয়েছেন। কিন্তু ধীরে ধীরে তা জনপ্রিয়তা পেয়েছে এবং রাস্তার বেপরোয়া চালকটিও তার নির্দেশ মেনে চলেন।

রণজিৎ বলেন, আমি মাইকেল জ্যাকসনের ভক্ত এবং গাড়ি থামাতে ১২ বছর আগে থেকে তার `মুনওয়াকিং’ নাচ অনুকরণ করছি। শুরুতে মানুষ বিস্মিত হতো। কিন্তু কয়েক বছর ধরে এটা ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে এবং অত্যন্ত কার্যকর।

ইন্দোরের দূষিত বাতাস আর গনগনে সূর্যের প্রখর খরতাপের নিচে দাঁড়িয়ে হাজারো গাড়ি সামলানো সহজ বিষয় নয়। পথচারী কিংবা চালকদেরও ক্লান্ত লাগার কথা।

রণজিতের মতে, তার ‘মুনওয়াকিং’ সবার ক্লান্তি ভুলিয়ে দেয়। শব্দ, গরম আর দূষণের মাঝে গাড়ি নিয়ন্ত্রণ করা ভীষণ ক্লান্তিকর কাজ। কিন্তু ‘মুনওয়াকিং’ পথচারী থেকে চালকদের বিনোদন দেয়।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ৩৮ বছরের এই ট্রাফিক পুলিশ কিন্তু ভীষণ জনপ্রিয়। ফেসবুকে তাকে অনুসরণকারীর সংখ্যা প্রায় ৫০ হাজার। তার নাচের ভিডিও শেয়ার করছেন হাজারো অনুসরণকারী। ব্যতিক্রমী কিন্তু কার্যকর ট্রাফিক পুলিশ হওয়ায় রণজিৎকে নিয়ে গর্বিত তার বাবা-মা। ‘ভালোবাসা ও যে উদ্ভাবনী শক্তি নিয়ে আমি কাজ করছি, সে জন্য আমার বাবা-মা ভীষণ গর্বিত।’

 

এপি/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়