• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫

সময় বলে দিবে ট্রাম্পের সিদ্ধান্ত সঠিক : নিকি হ্যালি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ১০ ডিসেম্বর ২০১৭, ২১:৩২
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী ঘোষণায় বিশ্বজুড়ে সমালোচনা হলেও জাতিসংঘে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি ট্রাম্পের পক্ষ নিয়ে কথা বললেন। রোববার তিনি বলেন, সময় বলে দিবে ট্রাম্পের সিদ্ধান্ত সঠিক ছিল। খবর দ্য হিল।

এদিকে জেরুজালেম ইস্যুতে গত শুক্রবার জরুরি বৈঠক ডেকেছিল জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ। বৈঠক চলাকালীন ১৫ সদস্যের পরিষদে মার্কিন প্রতিনিধি নিকি হ্যালি একাই দেশের প্রেসিডেন্টের হয়ে সরব হলেন। বাকি কোন দেশই সমর্থন জানায়নি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে। এমনকি যুক্তরাষ্ট্রের ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত ফ্রান্স, ব্রিটেনও কড়া সমালোচনা করেছে ট্রাম্পের। ব্রিটেন, ফ্রান্স, ইতালি, জার্মানি ও সুইডেন একটি যৌথ বিবৃতিতে জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্তকে আমরা মানি না। এটি নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাববিরোধী এবং বিশ্বের ওই অংশের শান্তি রক্ষার ক্ষেত্রে খুবই অস্বস্তিকর।

তাদের বক্তব্য, জেরুজালেমের পরিচয় ঠিক কী হবে, সেটা ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে, চুক্তিপত্র স্বাক্ষর করে স্থির করা উচিত। তবে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) সব দেশের অবস্থান বরাবরই এক। আর সেটা হলো জেরুজালেমকে ইসরায়েল ও ফিলিস্তিন দুই দেশেরই রাজধানী ঘোষণা করা হোক। সেটা না করলে জেরুজালেমের সার্বভৌমত্ব বজায় রাখা সম্ভব নয়। কিছুদিন আগে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক প্রধান কর্মকর্তা ফেডেরিকা মোগেরিনি এ কথা জানিয়েছিলেন।

এ প্রসঙ্গে মার্কিন প্রতিনিধি নিকি হ্যালির বক্তব্য, ওই দুই দেশের সীমান্ত নিয়ে কোন মন্তব্য করেননি ট্রাম্প।

আর জেরুজালেমের সার্বভৌমত্ব যে ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনকে আলোচনার মাধ্যমে বজায় রাখতে হবে, সে বিষয়ে কোন সন্দেহ নেই।

হ্যালি বলেন, আমরা জানতাম, প্রশ্ন উঠবেই। কিন্তু আমাদের এই সিদ্ধান্ত শান্তি প্রক্রিয়া এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য। ভয়ে পিছিয়ে গিয়ে তো কোন লাভ নেই। বাস্তবে যে পরিস্থিতি, আমাদের সিদ্ধান্তে সেটাই প্রতিফলিত হয়েছে।

উল্লেখ্য, জাতিসংঘে নিযুক্ত ইসরায়েলের দূত ড্যানি ড্যানোন যুক্তরাষ্ট্রের দেওয়া স্বীকৃতিকে স্বাগত জানান।

এপি/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়