• ঢাকা শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫

অনলাইনে হয়রানির শিকার হন প্রতি পাঁচজন নারীর একজন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ২১ নভেম্বর ২০১৭, ১০:০৪
প্রতিকী ছবি
প্রতি পাঁচজন নারীর একজনের বেশি অনলাইনে হয়রানির শিকার হন। এ তথ্য জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকারবিষয়ক সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

চার হাজার নারীর ওপর সংস্থাটির চালানো এক জরিপে এই তথ্য উঠে এসেছে।

গবেষণার ফলাফল অনুযায়ী, হয়রানির শিকার এ নারীদের বেশির ভাগকেই অনলাইনে হেনস্তা করা হয়েছে। অর্ধেকের বেশি ভুক্তভোগী জানিয়েছেন, তাদেরকে যৌন হয়রানি করা হয়েছে। এক-চতুর্থাংশ নারীরা শারীরিক কিংবা যৌনতাসংক্রান্ত হুমকি পেয়েছেন।

এ বিষয়ে অ্যামনেস্টির মানবাধিকার ও প্রযুক্তি বিষয়ক গবেষক আজমিনা ধরদিয়া বলেন, ‘ইন্টারনেট নারীদের জন্য একটি আতঙ্কজনক ও বিষাক্ত জায়গা হয়ে উঠতে পারে। এটা প্রায় সবাই জানে যে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে নারীদের প্রতি বিদ্বেষ ও হামলার ঘটনা অহরহ ঘটছে।

পশ্চিমা বিশ্বের আটটি দেশের ওপর এ জরিপ চালানো হয়। এ গবেষণার ফলাফলে বলা হচ্ছে, হয়রানির শিকার নারীদের ৪১ শতাংশ প্রতিদিনের কাজকর্মে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। এমনকি চারজনে একজন নিজের পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকেও নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। অনলাইনে হয়রানির ফলে দীর্ঘমেয়াদি ক্ষতি হতে পারে।

বেশির ভাগ নারীই জানিয়েছেন, হয়রানির শিকার হওয়ার পর থেকেই ইন্টারনেট ব্যবহার করার ব্যাপারে আতঙ্কে আছেন তারা।

সেক্সিস্ট, বর্ণবাদী ও সমকামী- সংশ্লিষ্ট হামলা ছাড়া, ১৭ শতাংশ অংশগ্রহণকারী জানিয়েছে, তাদের ব্যক্তিগত তথ্য বা ছবি অনলাইনে ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে এমন ঘটনার শিকারও হয়েছেন তারা।

ধরদিয়া বলেন, কোনো ‘এপ’ খোলার পর মৃত্যুর হুমকি বা ধর্ষণের হুমকি পাওয়ার বিষয়টি কল্পনা করে দেখুন। আপনার অনিচ্ছা সত্ত্বেও আপনার যৌন-বিষয়ক ও ব্যক্তিগত ছবি অনলাইনে ছড়িয়ে পড়ার ভয় নিয়ে বেঁচে থাকার বিষয়টি কল্পনা করে দেখুন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম বিষয়ক প্রতিষ্ঠানগুলো এমন হয়রানি ও নির্যাতন মোকাবিলায় নানা পদক্ষেপ নিচ্ছে, তবে অনেকের মতে সেসব পদক্ষেপ খুব একটা কার্যকরী নয়।

জরিপে অংশ নেয়া অনেক নারীদের ভাষ্যমতে, তাদের প্ল্যাটফর্মে এ ধরনের হয়রানি মোকাবিলায় কর্তৃপক্ষ সন্তোষজনক পদক্ষেপ নিচ্ছে না।

এছাড়া অ্যামনেস্টি উল্লেখ করেছে,  এরকম হয়রানির শিকারদের রক্ষা করতে প্রয়োজনীয় নীতিমালা ও আইনের অভাব থাকার বিষয়টিও গুরুত্বপূর্ণ।

জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়