মানবিক রাষ্ট্র গড়তে বিএনপির কাছে দুই বছর চায় যুক্তফ্রন্ট

প্রকাশ | ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১২:৪১ | আপডেট: ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৩:০৯

মাইদুর রহমান রুবেল, আরটিভি অনলাইন

অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে সরকার গঠন করতে পারলে মানবিক রাষ্ট্র তৈরির জন্য বিএনপি’র কাছে প্রথম দুই বছর সময় চায় যুক্তফ্রন্ট। 

আরটিভি অনলাইনের সঙ্গে দেয়া আলাপকালে এমনটাই জানালেন নবগঠিত জোট যুক্তফ্রন্টের নেতারা। তারা বললেন, সরকার চাইলেই ইচ্ছেমতো আর নির্বাচন করতে পারবে না। পদত্যাগ করেই তাদের নির্বাচন দিতে হবে। 

রাজনৈতিক স্বেচ্ছাচারিতা বন্ধ করে, সংসদ ও সরকারের মধ্যে ভারসাম্য আনতে, আওয়ামী লীগ-বিএনপি’র বাইরে তৃতীয় ধারা গড়তে কাজ করছে, যুক্তফ্রন্ট। বর্তমান সরকার গণবিরোধী অভিযোগ কোরে, বৃহত্তর ঐক্য গড়তে, ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছে জোট। 

নিজেদের বেশিরভাগ দাবির সঙ্গে মিল থাকায় বিএনপি’র সঙ্গে এক হয়ে কাজ করতেও আগ্রহী তারা। যুক্তফ্রন্টের সব দাবির সঙ্গে একমত হতে না পারলেও বিভিন্ন অনুষ্ঠানে একসঙ্গে অংশ নিচ্ছেন, বিএনপি ও জোট নেতারা।
------------------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : বিশ্বাসঘাতকতা করলে ডাইরেক্ট বহিষ্কার: কাদের
------------------------------------------------------------------

এ বিষয়ে কথা হয় জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আব্দুর রব। মুক্তিযুদ্ধে অসামান্য অবদান এ রাখা এ নেতা আরটিভি অনলাইনকে বলেন, রাজনীতিতে গুণগত পরিবর্তন আনতে যুক্তফ্রন্ট কাজ করছে।

তিনি বলেন, নির্বাচন নিয়ে সরকারকে তার একরোখা মনোভাব বদলাতে হবে। তা না হলে যুক্তফ্রন্টও কঠোর অবস্থানে যাবে। 

তবে কারো ক্ষমতায় যাওয়ার সিঁড়ি হতে চায় না নতুন জোট- এমনটা জানালেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না।  ডাকসুর সাবেক এই ভিপি জানালেন, ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণই যুক্তফ্রন্টের অন্যতম লক্ষ্য। 

তিনি বলেন, জাতীয় স্বার্থে স্বাধীনতাবিরোধী শক্তিকে বাদ দিয়ে অসাম্প্রদায়িক ও গণতান্ত্রিক দলগুলোর ঐক্য জরুরি।

আরও পড়ুন :

এসজে