close
ঢাকা, সোমবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | ১০ আশ্বিন ১৪২৪

কোরবানির ঈদে রাজধানীতে বসবে ২২ হাট (ভিডিও)

মুক্তা মাহমুদ, আরটিভি
|  ২৩ আগস্ট ২০১৭, ১২:৩৩ | আপডেট : ২৩ আগস্ট ২০১৭, ১২:৫২
আর মাত্র কয়েকটা দিন। এরপরই পবিত্র ঈদুল আযহা। তাই এরই মধ্যে প্রস্তুত হতে শুরু করেছে রাজধানী। কোরবানির পশু বিক্রির জন্য এ বছর রাজধানীতে ২২টি জায়গা নির্ধারণ করে দিয়েছে সিটি করপোরেশন। 

অন্যদিকে এ বছর পশু কোরবানির জন্য রাজধানীর উত্তর সিটি করপোরেশনে ৫৪৬টি জায়গা নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে। আর দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রতিটি ওয়ার্ডে এ ব্যবস্থা রেখে মোট ৬২৫টি পশু কোরবানির স্থান ঠিক করে দেয়া হয়েছে। এসব হাটে পশু বিক্রি হবে। এরপর ঈদের দিন সেসব পশু কোরবানি হবে। যা চলবে পরের দু’দিন ধরে।

এদিকে রাজধানীর বাসা-বাড়ির আশপাশে জায়গা তেমন না থাকায় ঈদের দিনে অনেক পশু রাস্তায় জবাই করতে হয়। এতে পশুর পড়ে থাকা বর্জ্যে নোংরা হয় পরিবেশ। এ অবস্থা থেকে নগরবাসীকে স্বস্তি দিতে বছর তিনেক আগে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় রাজধানীর পাশাপাশি সারাদেশে নির্দিষ্ট স্থানে কোরবানির জন্য জায়গা ঠিক করে দেয়। সেথেকেই রাজধানীর প্রতিটি ওয়ার্ডে পশু কোরবানির ব্যবস্থা করে সিটি করপোরেশন।

সরকারের এমন উদ্যোগে এখন পর্যন্ত তেমন সাড়া না পড়লেও পরিবেশের কথা চিন্তা করে এবারো একই উদ্যোগ নিয়েছে দুই সিটি করপোরেশন। এ বছরও দুই সিটির প্রতিটি ওয়ার্ডে কোরবানির জন্য জায়গা নির্ধারণ করার কথা জানালেন দুই সিটির দুই প্রধান বর্জ্য কর্মকর্তা।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপক কমোডর এম এ রাজ্জাক বললেন, এবার ঈদে সবাইকে উৎসাহিত করছি রাস্তায় পশু কোরবানি না দিয়ে সিটি করপোরেশনের নির্ধারিত স্থানে কোরবানি দিতে। এখানে কোনো আইনি বাধ্যবাধকতা নেই যে নির্ধারিত স্থানে আসতেই হবে। তবে এটি করা হচ্ছে পরিবেশের স্বার্থে সিটি করপোরেশন থেকে সকলকে উৎসাহিত করা হচ্ছে সবাইকে একই স্থানে কোরবানি করার জন্য।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপক এয়ার কমোডর শফিকুল আলম বললেন, সিটি করপোরেশনের নির্ধারিত স্থানগুলোর তালিকা আমরা ওয়ার্ড কাউন্সিলারদের মাধ্যমে প্রত্যেক মসজিদে এবং ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে টানিয়ে দিবো। এবং প্রত্যেক এলাকায় কোরবানি পরিচালনার জন্য আমরা ওয়ার্ড ভিত্তিক কমিটি নির্ধারণ করে দিয়েছি। এছাড়া নির্ধারিত জায়গায় কোরবানি দিতে ইমাম-কসাইসহ সব ধরনের ব্যবস্থাপনার কথাও জানালেন তারা। 

শহরের পরিবেশ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে এবং বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সহজ করতে নির্ধারিত জায়গায় কোরবানি দেয়ার আহ্বান জানালেন তারা।

 

আরকে/এসএস 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়