তরুণ সিনেমা নির্মাতাদের উৎসব

প্রকাশ | ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:৪২ | আপডেট: ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২০:২৭

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে চলছে ১০ম আন্তর্জাতিক আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র উৎসব। আজ সোমবার উৎসবের দ্বিতীয় দিনের আয়োজনে আছে- দুটি সেশনে মোট ২৭টি চলচ্চিত্রের প্রদর্শনী।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদ আয়োজিত এই উৎসবে রয়েছে নিয়মিত দুটি ক্যাটাগরি। এগুলো হলো- প্রতিযোগিতা বিভাগ: স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র (সর্বোচ্চ ১৫ মিনিট) এবং প্যানারোমা বিভাগ: স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র (সর্বোচ্চ ৩০ মিনিট)।

তবে এই দুটি বিভাগ এবার পুরষ্কারের জন্য প্রতিযোগিতা করবে না। কিন্তু প্রদর্শনী এবং সম্মাননার জন্য বিবেচিত হবে। এছাড়া ১০ম আয়োজনে নতুন একটি ক্যাটাগরি ‘শরণার্থী বিষয়ক স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র’ যুক্ত হয়েছে।

এ বছর স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র সংগ্রহের প্রক্রিয়া গত ২০ মে থেকে শুরু হয়েছিল। গত ৫ আগস্ট প্রক্রিয়াটি শেষ হয়। মোট ৭২টি দেশের বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এই আয়োজনে অংশগ্রহণ করছে। তিনটি ক্যাটাগরিতে জমা পড়েছে ৭০২টি চলচ্চিত্র। ‘শরণার্থী বিষয়ক স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র’  ক্যাটাগরিতে জমা পড়েছে মোট ৪৫টি চলচ্চিত্র।

টিএসসিতে তিনদিনের প্রদর্শনীর দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনে বিচারকমন্ডলীদের নির্বাচিত ১৪টি শরণার্থী বিষয়ক চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হয়। প্রদর্শনীতে চলচ্চিত্র নির্মাতা, চলচ্চিত্র সংসদ কর্মীরা অংশগ্রহণ করেন। দিনের দ্বিতীয় এবং শেষ সেশনে ছিল দেশি-বিদেশি মোট ১৩টি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র।

চলচ্চিত্র নির্মাতা তৌকীর আহমেদ, মোস্তফা সরয়ার ফারুকী, আবু শাহেদ ইমন, শামীম আখতার, মোস্তাফিজ, রাশেদুল হাফিজ এবং অধ্যাপক ড. জুনায়েদ হালিম এবারের আয়োজনের বিচারকমন্ডলীর সদস্য হিসেবে আছেন।

মঙ্গলবার তৃতীয় ও শেষ দিনের কর্মসূচিতে টিএসসি অডিটোরিয়ামে পুরষ্কার প্রদান করা হবে। এ অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি থাকবেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, চলচ্চিত্র নির্মাতা মোরশেদুল ইসলামসহ অনেকে।

এছাড়া আগামী ১৮ সেপ্টেম্বর সেরা ১৫টি স্বল্পদৈর্ঘ্য  চলচ্চিত্র নিয়ে রাজধানীর স্টার সিনেপ্লেক্সে বিশেষ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিযোগিতা বিভাগের নির্বাচিত চলচ্চিত্রগুলো থেকে সেরা সিনেমা পাবে ‘জহির রায়হান শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র পুরষ্কার’ এবং শ্রেষ্ঠ বাংলাদেশি পরিচালক পাবেন ‘তারেক মাসুদ সেরা উদীয়মান পরিচালক পুরষ্কার’।

দুটি পুরস্কারের জন্যই যথাক্রমে থাকবে ৩০০ ও ২০০ মার্কিন ডলারের প্রাইজমানি। এছাড়া সেরা ৩০ জন পাবেন দেশ ও দেশের বাইরের বিখ্যাত চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্বের উপস্থিতিতে একটি ‘ট্যালেন্ট ক্যাম্পাস’ আয়োজনে অংশগ্রহণের সুযোগ।

উল্লেখ্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদ তরুণ নির্মাতাদের জন্য ২০০৭ সাল থেকে নিয়মিত ‘আন্তর্জাতিক আন্তঃ বিশ্ববিদ্যালয় স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র উৎসব’  আয়োজন করে আসছে।

আরও পড়ুন :

পিআর/এ