• ঢাকা বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

অসুস্থ শরীর নিয়েও শুটিং করেছি: শাহীন সুমন

এ এইচ মুরাদ, আরটিভি অনলাইন
|  ৩০ জুলাই ২০১৮, ১৬:২৪ | আপডেট : ৩০ জুলাই ২০১৮, ১৬:৪৯
ঢাকাই সিনেমায় ড্যাশিং ডিরেক্টর বলে পরিচিত শাহীন সুমন। এবারের ঈদ-উল-আজহায় তার পরিচালিত ‘মাতাল’ নামে একটি সিনেমা মুক্তি পেতে যাচ্ছে। এরই মধ্যে চলচ্চিত্রপাড়ায় সিনেমাটি নিয়ে বেশ আলোচনা শুরু হয়েছে। সবশেষ ২০১৫ সালের ঈদে শাহীন সুমন পরিচালিত ‘লাভ ম্যারেজ’ মুক্তি পায়। আর সেই সিনেমায় জুটি বেঁধে অভিনয় করেছিলেন শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস। এবার এই নির্মাতার ‘মাতাল’ সিনেমায় অভিনয় করেছেন একঝাঁক নতুন মুখ। ‘মাতাল’ সিনেমা ও অন্যান্য প্রসঙ্গ নিয়ে আরটিভি অনলাইনের মুখোমুখি হয়েছেন শাহীন সুমন। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক এ এইচ মুরাদ।

৩ বছর পর আপনার পরিচালিত কোনও সিনেমা ঈদে মুক্তি পাচ্ছে। এই বিষয়ে জানতে চাই?

এখন পর্যন্ত ঈদে আমার পরিচালিত যতগুলো সিনেমা মুক্তি পেয়েছে বেশিরভাগই ব্যবসা সফল হয়েছে। সবশেষ ২০১৫ সালে ‘লাভ ম্যারেজ’ মুক্তি পায়। সেটিও দর্শকরা সাদরে গ্রহণ করেছেন। শাকিব খান, অপু বিশ্বাস, মিশা সওদাগরসহ একঝাঁক তারকাশিল্পী নিয়ে সিনেমাটি নির্মাণ করেছিলাম। তবে এবারের ঈদে ‘মাতাল’ সিনেমায় বেশ কয়েকজন নতুন মুখ আছেন। বিশেষ করে অধরা খান নামে নতুন একজন নায়িকার অভিষেক হচ্ছে সিনেমাটির মাধ্যমে। তার বিপরীতে দেখা যাবে সাইমন সাদিককে। এছাড়া অরিন-শিপন জুটিকেও দর্শকরা দেখবেন। মিশা সওদাগর ভাই এবং জয়রাজ দুর্দান্ত অভিনয় করেছেন। শিল্পীরা তাদের জায়গা থেকে সেরাটা দিয়ে কাজ করেছেন। এতদিনের অভিজ্ঞতা থেকে আমি চ্যালেঞ্জ দিয়ে বলতে পারি সিনেমাটি দেখে দর্শকরা নিরাশ হবেন না।

এত নিশ্চিত হচ্ছেন কীভাবে, দর্শকরা তো সিনেমাটি নাও গ্রহণ করতে পারেন?

অনেক কিছুই তো হতে পারে। আমার ভাষ্য হলো, আমি দর্শকের জন্য ভালো কনটেন্ট বানানোর চেষ্টা করেছি। আমি জানি দর্শকদের পছন্দ-অপছন্দ। এই সিনেমার গল্প আমি নিজে তৈরি করেছি। দীর্ঘদিন ধরে পরিকল্পনা করেছি। এর মাঝে তো কত সিনেমায় রিলিজ করলাম। শাহীন সুমনের প্রতিটি সিনেমার মতো ‘মাতাল’ সিনেমায়ও ভিন্নতা থাকবে। আমার বিশ্বাস এই ভিন্নতার জন্যই দর্শক সিনেমাটি গ্রহণ করবে।

ঈদে বেশ কয়েকটি সিনেমা মুক্তির মিছিলে রয়েছে। ‘মাতাল’ কতগুলো প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেতে পারে?

হল কয়টা পাবো বা পাবো না, এ নিয়ে আমরা কিছুই ভাবছি না। আমার সিনেমার প্রযোজকও (শরীফ চৌধুরী) চান ঈদে সিনেমাটি রিলিজ হোক। আমার মনে হয় সিনেমাটির ক্ষেত্রে আমাদের হল নিয়ে খুব একটা সমস্যা হবে না। আর সিনেমা হল কম পেলেও ছবি মুক্তি দেবো।

এই সিনেমার বিশেষত্ব কী?

বিনোদনের পুরো প্যাকেজ হলো ‘মাতাল’। উৎসবে দর্শক যা চান তার সব কিছুই সিনেমায় রাখার চেষ্টা করেছি। সম্পূর্ণ দেশীয় শিল্পী ও কলাকুশলীদের সিনেমা মাতাল। দর্শকদের একটা কথাই বলবো। দেশের সিনেমা দেখুন। সিনেমা হল, বাঁচান, শিল্পী ও কলাকুশলী বাঁচান। আমরা ভালো সিনেমা উপহার দেবো।

শাকিব খান-বুবলীকে নিয়ে একটি সিনেমা বানাতে যাচ্ছেন। এই প্রসঙ্গে জানতে চাই?

শাকিবের সঙ্গে আমার বেশিরভাগ সিনেমাই ব্যবসাসফল। শাকিবের সঙ্গে ব্যক্তিগত সম্পর্কটাও বেশ ভালো। লাভ ম্যারেজ, নষ্ট, খোদার পরে মা, মনে বড় কষ্ট, একবুক জ্বালা, টাইগার নাম্বার ওয়ান, সন্তান আমার অহংকারসহ ২০টি সিনেমা একসঙ্গে করছি। এটা আমার সঙ্গে শাকিবের ২১তম সিনেমা। সিনেমার নাম এখনও চূড়ান্ত হয়নি। শাপলা মিডিয়া প্রযোজিত সিনেমায় শাকিবের নায়িকা হিসেবে থাকছে বুবলী। আশা করছি এই সিনেমাটিও দর্শকরা গ্রহণ করবেন।

আপনার শারীরিক অবস্থা এখন কেমন?

৪ জুলাই ‘মাতাল’ সিনেমার শুটিং-এ পা পিছলে পড়ে যাওয়াতে বুকের একটি হাড় ভেঙে গেছে। অসুস্থ শরীরেই শুটিং শেষ করেছি। চিকিৎসকের পরামর্শে এখনও চলছি। ওষুধ খাচ্ছি। পুরোপুরি সুস্থ হতে আরও সময় লাগবে।

এম/পিআর

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়