• ঢাকা শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫

স্বামীর বিরুদ্ধে প্রিয়াঙ্কার অভিযোগ

বিনোদন ডেস্ক
|  ২১ জুন ২০১৮, ১৩:১৩ | আপডেট : ২১ জুন ২০১৮, ১৩:৩৫
ছবি সংগৃহীত
‘চিরদিনই তুমি যে আমার’ ছবির মাধ্যমে তুমুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেন প্রিয়াঙ্কা সরকার ও রাহুল ব্যানার্জী। দাম্পত্য জীবনেও তারা ছিলেন সুখী দম্পতির অনন্য উদাহরণ। টালিউডের এই তারকা দম্পতি অনেক আগে থেকেই আলাদা বসবাস করছেন। এখন ডিভোর্সের আইনি প্রক্রিয়া চলছে।   

প্রিয়াঙ্কা-রাহুলের সংসার আলো করে আসে ছেলে সহজ। বিচ্ছেদের পরেও তাদের মধ্যে সুসম্পর্ক ছিল। তবে হঠাৎ রাহুলের বিরুদ্ধে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ করেছেন প্রিয়াঙ্কা। এমন দাবি অবশ্য করেছেন রাহুল নিজেই।

--------------------------------------------
আরও পড়ুন : ভীষণ চটেছেন দীপিকা
--------------------------------------------

ভারতের একটি গণমাধ্যমে রাহুল বলেছেন, ‘গত সাত মাস আমাকে ছেলের মুখ দেখতে দেয়া হয়নি। প্রিয়াঙ্কা আমার কাছ থেকে এককালীন এক কোটি ২৫ লাখ টাকা দাবি করেছে। ওর এখন ‘সুলতান’-এর মতো ছবি চলছে। আমি সিরিয়াল করি। এত টাকা কী দেয়া সম্ভব? টাকাটা না দিলে ছেলের সঙ্গে দেখা করতে দেয়া হবে না, এটাও বলেছে। আমি নাকি ওকে শারীরিক-মানসিক নির্যাতন করেছি। এটা ও বিভিন্ন জায়গায় বলছে। আমি বিভিন্ন সূত্রে শুনলাম। আমাকে সরাসরি কিছু বলেনি। বরং আমি তো বলব, আমার পরিবারের উপর ও মানসিক নির্যাতন চালিয়েছে।’

টাকা দাবি করার কথা স্বীকার করে নিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা। তিনি বলেন, ‘ছেলের কথা ভেবে এতদিন মুখ খুলিনি।’ এদিকে আগামী ১৭ জুলাই তাদের বিচ্ছেদ মামলার প্রথম শুনানি। যদিও রাহুল এখনও পর্যন্ত থানায় বা অন্য কোথাও কোনও অভিযোগ দায়ের করেননি। তিনি বলেন, ‘এবার প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে আমার কোর্টে দেখা হবে। আদালত যা বলবে, আমি সেই মতো কাজ করব।’

প্রিয়াঙ্কার অভিযোগ, ‘গত দুই বছরে সহজের প্রতি রাহুল দায়িত্ব পালন করেনি। মাসে মাসে টাকা দেয়ার কথা যদি ও বলে থাকে, সেটা সম্পূর্ণ মিথ্যে। আমার একার পক্ষে সবটা মেনটেইন করে ভবিষ্যতের জন্য কিছু সেভিংস করা সম্ভব হচ্ছে না। দু’বছর আগে রাহুলের হাতে তেমন কাজ ছিল না। কিন্তু এখন মাসে ৭ লাখ টাকা রোজগার করে। তার নিজের ফ্ল্যাট-গাড়ি রয়েছে। ফলে ও ছেলের জন্য কিছু কন্ট্রিবিউট করতে পারে।’

তিনি আরও বলেন, ‘রাহুল আমাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করেছে। আমার পেন্টিং ভেঙে দেয়া, নিজের গায়ে গরম চা ঢেলে দেয়া, কিছুই বাদ রাখেনি। আমার বাবা-মাকে নিয়ে অত্যন্ত খারাপ কথা বলেছে। হোয়াটসঅ্যাপে সে সব রয়েছে। চাইলে আমি সেগুলো দেখাতে পারি। এমনকী, ও সহজকেও বুঝিয়েছে, মা খারাপ। ছেলে এতটাই ছোট, স্কুলে গিয়ে কান্নাকাটি করেছে। ও ভেবেছিল, হয়তো মায়ের সঙ্গে আর থাকতে পারবে না। স্কুল থেকে সব কিছু আমাকে জানানো হয়।’

 

আরও পড়ুন :

    বিশ্ব সঙ্গীত দিবসে নানা আয়োজন

    ইরানের সঙ্গে যৌথ প্রযোজনায় অনন্ত জলিল

এম/পিআর

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়