• ঢাকা সোমবার, ১৬ জুলাই ২০১৮ | ০১ শ্রাবণ ১৪২৫

২০১৮ সালের ঢালিউড

আশার আলো দেখাচ্ছে এপ্রিল

এ এইচ মুরাদ
|  ১৬ এপ্রিল ২০১৮, ১৬:০৩
চলতি বছরে মুক্তি পাওয়া বেশিরভাগ ছবি ব্যবসায়িক সফলতা পায়নি। ২০১৮ সালের ভালোবাসা দিবসে মুক্তি পাওয়া ‘আমি নেতা হবো’ ছবিটি ছাড়া অন্য কোনো ছবি তেমন একটা দর্শক টানতে পারেনি। ঢালিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির মন্দার বাতাসে যেন কিছুটা আশার আলো দেখাচ্ছে এপ্রিল মাস।  

উত্তম আকাশ পরিচালিত এই ছবিতে জুটি হয়ে অভিনয় করেছেন শাকিব খান ও বিদ্যা সিনহা মিম। শাকিবের জনপ্রিয়তায় ছবিটি দেখতে হলমুখী হন দর্শক। ঢাকার বেশ কয়েকটি হল ঘুরে এমন তথ্যই পাওয়া গেছে।

তবে ছবির নির্মাণ নিয়ে পরিচালককে অনেক দর্শকই কাটগড়ায় তুলেছেন। পরিচালকের কাছে আরও উন্নত নির্মাণ আশা করেছিলেন দর্শকরা। অথচ ‘আমি নেতা হবো’ ছাড়া বাকি ছবিগুলো শুধু হতাশাই বাড়িয়েছে।

২৩ মার্চ মুক্তি পায় দুটি ছবি। সৈকত নাসির পরিচালিত ‘পাষাণ’। ‘দেশা দ্য লিডার’ খ্যাত পরিচালকের এই ছবিটি দর্শকমহলে তেমন সাড়া ফেলতে পারেনি। তবে ছবির নির্মাণ ও গান প্রশংসিত হয়েছে। ছবিতে অভিনয় করেন মিম, বিপাশা, মিশা সওদাগর ও কলকাতার ওম।

একই দিনে মাত্র ৩টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় ‘মাটির প্রজার দেশে’ ছবিটি। বিজন ইমতিয়াজ পরিচালিত ছবিটি দেশে মুক্তির আগেই বিদেশের মাটিতে বেশ কিছু পুরস্কার অর্জন করে। সমালোচকরাও ছবিটির বেশ প্রশংসা করেছেন।

গিয়াস উদ্দিন সেলিম ২০০৯ সালে প্রথম ছবি ‘মনপুরা’ দিয়ে তুমুল আলোচনায় আসেন। দেশের চলচ্চিত্র ইতিহাসে অন্যতম সফল ছবি ছিল এটি। এর ৯ বছর পর ‘স্বপ্নজাল’ নিয়ে ৬ এপ্রিল হাজির হন সেলিম। আর এই ছবির প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন পরীমনি ও ইয়াশ রোহান। ছবিটি মুক্তি পায় ২০টি সিনেমা হলে। দর্শক ও সমালোচকদের কাছে বেশ প্রশংসিত হয়েছে ছবিটি। এখনও দেশের বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শিত হচ্ছে ছবিটি। এছাড়া দেশের বাইরেও বেশ কয়েকটি সিনেমা হলে ছবিটি প্রদর্শিত হবে।

একই দিনে চিত্রনায়ক বাপ্পি চৌধুরী অভিনীত ‘পলকে পলকে তোমাকে চাই’ ছবিটি মুক্তি পায়। হঠাৎ করেই ছবিটি মুক্তির ঘোষণা দেন ছবিটির নির্মাতা। আর ঘোষণা দিয়েই ৮০টির বেশি প্রেক্ষাগৃহ পায় ছবিটি। আর প্রথম সপ্তাহেই ছবিটি ব্যবসা সফল ছবির তকমা তুলে নেয়। এই ছবিতে বাপ্পির সঙ্গে ছিলেন নায়িকা মাহি। দ্বিতীয় সপ্তাহেও ৪৩টি প্রেক্ষাগৃহে চলছে এই ছবিটি।

এবার বৈশাখকে উপলক্ষ্য করে ১৩ এপ্রিল মুক্তি পেয়েছে ‘বিজলী’ ও ‘একটি সিনেমার গল্প’ নামে দুটি চলচ্চিত্র। ‘বিজলী’ পরিচালনা করেছেন ইফতেখার চৌধুরী। চিত্রনায়িকা ববির চলচ্চিত্র প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ববস্টার ফিল্মসের প্রযোজনায় নির্মিত হয়েছে বিগ বাজেটের ছবিটি। 

সুপারহিরোইন কাহিনির এই ছবিতে ববির নায়ক হিসেবে আছেন ভারতের রণবীর। আরও অভিনয় করেছেন ইলিয়াস কাঞ্চন, মিশা সওদাগর, শতাব্দী রায়। অতিথি চরিত্রে আছেন জাহিদ হাসান ও আনিসুর রহমান মিলন। বড় ক্যানভাসের ছবিটি এরই মধ্যে দর্শক মহলে বেশ সাড়া জাগিয়েছে। বিশেষ করে ছবির নির্মাণ শৈলী দেখে মুগ্ধ হয়েছেন দর্শক। ছবিটি ৭৯টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে।  

অন্যদিকে নায়ক-অভিনেতা-প্রযোজক আলমগীরের পরিচালনায় ‘একটি সিনেমার গল্প’ প্রায় ৫০টি প্রেক্ষাগৃহে চলছে। এই ছবির প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন বাংলাদেশের আরিফিন শুভ ও ভারতের ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন আলমগীর ও চম্পা। বিজলীর চেয়ে সেল রিপোর্টের দিক থেকে কিছুটা পিছিয়ে আছে ছবিটি। তবে নায়ক আলমগীর পরিচালিত ছবি হওয়াতে হল মালিকদের অনেকেই ‘একটি সিনেমার গল্প’ নিয়ে এখনও আশবাদী।

আশার কথা হলো এপ্রিল মাস থেকে হলমুখী হতে শুরু করেছেন দর্শক। চলতি মাসে একই সঙ্গে বিভিন্ন ঘরানার ৪টি ছবি মুক্তি পাওয়াতে সব শ্রেণী-পেশার দর্শক তাদের পছন্দমতো ছবি দেখতে হলে ভিড় করছেন। বিষয়টিকে চলচ্চিত্রের মন্দার বাজারে হঠাৎ সুবাতাস বলছেন এই অঙ্গনের সঙ্গে জড়িত মানুষজন।

এম/পিআর

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়