• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫

গ্যাসের দাম বাড়লে কমবে শিল্পায়ন

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ২৩:১৯ | আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ২৩:২৭
গ্যাসের দাম বাড়লে শিল্পের গতি কমবে। ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো প্রতিযোগিতা সক্ষমতায় পিছিয়ে পড়বে।পরিবহন ব্যয় বাড়বে। খরচ বেড়ে যাবে ব্যবসা পরিচালনায়। বাড়বে মূল্যস্ফীতিও। তাই সরকারের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার দাবি জানিয়েছে দেশের ব্যবসায়ী সংগঠনগুলো।

শনিবার ঢাকা চেম্বার অব কর্মাস ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই) ও এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ইএবি) আলাদা দুটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ দাবি জানায়।

ডিসিসিআই বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, বর্তমানে গ্যাসের সরবরাহ শিল্প ও বাসাবাড়িতে পর্যাপ্ত নয়। তার ওপর দাম বাড়ানোর ফলে প্রান্তিক পর্যায়ে জিনিসপত্রের দাম বাড়বে।এমনিতেই ব্যবসায়ীদের প্রতিযোগিতা করা কঠিন হয়ে পড়েছে। বিশেষ করে তৈরি পোশাক খাত পিছিয়ে পড়বে। গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রভাব গিয়ে পড়বে সব খাতে।

ইএবি জানায়, গ্যাসের দাম বাড়লে দেশের সব রপ্তানি পণ্যসহ দেশীয় সব শিল্পই সরাসরি ক্ষতিগ্রস্ত হবে। এখানে উৎপাদনকারীর স্বার্থ, ভোক্তা স্বার্থ ও জনগণের স্বার্থ সংরক্ষণ হয়নি। বিশেষ করে মাছ, হিমায়িত খাদ্যপণ্য, কাঁচাবাজার, প্লাস্টিক, লেদার, তৈরি পোশাক ও বস্ত্রখাত শিল্পসহ সব ধরনের রপ্তানি বাণিজ্যে সরাসরি নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। সেইসঙ্গে রপ্তানিমুখী শিল্প সক্ষমতা হারাবে। বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে যখন শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলো সক্ষমতা অর্জনের পথে কয়েক ধাপ এগিয়ে যাচ্ছিল সেই মুহূর্তে গ্যাসের দাম বৃদ্ধি তা অর্জনে বাধা বলে মনে করে ইএবি।

এ অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে সব রপ্তানি খাত; বিশেষ করে পোশাক ও বস্ত্র খাতের রপ্তানি লক্ষ্যমাত্রা অর্জন ও সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য গ্যাসের দাম বৃদ্ধির বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করার জন্য ইএবি ও ডিসিসিআই সরকারের কাছে অনুরোধ জানিয়েছে।

গেলো বৃহস্পতিবার গ্যাসের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেয় বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)। আসছে ১ মার্চ থেকে এক চুলার গ্যাসের দাম হবে ৭শ’ ৫০ টাকা আর দু’চুলার হবে ৮শ টাকা। ৩ মাস পর এক চুলা হবে ৯শ’ আর দু’চুলা হবে ৯শ’ ৫০ টাকা।

এমসি/ডিএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়