• ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫

বেঙ্গল উইন্ডসর থার্মোপ্লাস্টিকের ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৮:৫৭ | আপডেট : ০১ মার্চ ২০১৭, ১৮:৩৩
প্রকৌশল খাতের কোম্পানি বেঙ্গল উইন্ডসর থার্মোপ্লাস্টিক বিনিয়োগকারীদের জন্য ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এছাড়া ৪টি এজেন্ডা অনুমোদন করে কোম্পানিটি।

বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়া স্টুডিওতে এর বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) হয়। এতে ৩০ জুন ২০১৬ সমাপ্ত অর্থবছরে এ লভ্যাংশ ঘোষণা দেয় কোম্পানিটি।

এসময় বেঙ্গল গ্রুপ অব ইন্ড্রাস্ট্রিজ’র চেয়ারম্যান আলহাজ মোর্শেদ আলম ও ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জসিমউদ্দিনসহ পরিচালকবৃন্দ  ছিলেন। মোহাম্মদ জসিমউদ্দিন বলেন, বেঙ্গল গ্রুপের প্রধান শক্তি স্বচ্ছতা-জবাবদিহিতা ও দক্ষতা। যা আসছে দিনেও অব্যাহত থাকবে।

দেশের অর্থনীতিকে সমৃদ্ধ করাই বেঙ্গল গ্রুপের মূল লক্ষ্য উল্লেখ করে আলহাজ মোর্শেদ আলম বলেন, মানুষের জন্য কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দেশকে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী করতে নিরন্তন কাজ করে যাচ্ছে বেঙ্গল গ্রুপ।

কোম্পানিটি ২০১৫ সালে ১০ শতাংশ শেয়ার বোনাস ও ২০১৪ সালে ২৩ শতাংশ নগদ লাভ্যাংশ দেয়। এ ক্যাটাগরির প্রতিষ্ঠানটি ২০১৩ সালে শেয়ারবাজারে অন্তর্ভুক্ত হয়। শতভাগ শেয়ারের মধ্যে ৩২.২০ শতাংশ স্পন্সর ও ডিরেক্টরদের ১৮.৮৯ শতাংশ এবং ৪৮.৯১ শতাংশ সাধারণ বিনিয়োগকারীদের রয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির শেয়ারের বর্তমান বাজারমূল্য ৪৭ টাকা।

এর আগে গেলো রোববার সহযোগী কোম্পানি বেঙ্গল পেট্রোসেম অ্যান্ড সিনথেটিক্স টেক্সটাইলকে একীভূত করতে বেঙ্গল উইন্ডসর থার্মোপ্লাস্টিক কোম্পানির প্রস্তাব অনুমোদন করে হাইকোর্ট।

সূত্র জানায়, বেঙ্গল পেট্রোসেম অ্যান্ড সিনথেটিক্স টেক্সটাইল কোম্পানির প্রায় ৯৯ শতাংশ শেয়ারের মালিক তালিকাভুক্ত কোম্পানি বেঙ্গল উইন্ডসর থার্মোপ্লাস্টিক। কিছু শেয়ার রয়েছে ব্যবস্থাপনা পরিচালকের কাছে। উভয় কোম্পানি প্লাস্টিক পণ্য উৎপাদন ও বিপণন করে। পরিচালনা পর্ষদও পরিচালিত হচ্ছে একই ব্যক্তিদের দ্বারা। এ ছাড়া দু’কোম্পানির কারখানা ঢাকা ইপিজেডে অবস্থিত। ব্যবস্থাপনা ব্যয় কমাতে উভয় কোম্পানির পর্ষদ একীভূত হবার সিদ্ধান্ত নেয়। তবে এজন্য বেঙ্গল উইন্ডসরকে নতুন করে শেয়ার ইস্যু করতে হবে না।

২০১৫ সালের আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, বেঙ্গল পেট্রোসেম অ্যান্ড সিনথেটিক টেক্সটাইলসের স্থায়ী সম্পদের দাম ১৯ কোটি ২৬ লাখ ৬ হাজার টাকা। এ কোম্পানির ব্যাংক ঋণ রয়েছে প্রায় ১১ কোটি টাকা।

গেলো ১৭ আগস্ট বেঙ্গল উইন্ডসরের পর্ষদ এ সিদ্ধান্ত নেয়। পরে ২৯ আগস্ট হাইকোর্ট কোম্পানিটিকে শেয়ারহোল্ডাদের অনুমোদন নেয়ার আদেশ দেন।

রোববার ডিএসইর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, একীভূতকরণে হাইকোর্টের আদেশের সত্যায়িত অনুলিপি পাবার ৬ সপ্তাহের মধ্যে তা কার্যকরের জন্য যৌথ মূলধনী কোম্পানিগুলোর নিবন্ধকের কার্যালয়ে কাগজপত্র দাখিলের কথা বলা হয়।

এমসি/ডিএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়