• ঢাকা শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫

ইলিশের স্যুপ-নুডলস আসছে ঈদের পর

শাহীনুর রহমান
|  ৩০ জুলাই ২০১৮, ১১:৩০ | আপডেট : ৩০ জুলাই ২০১৮, ১১:৪৫
চলতি মৌসুমে সুস্বাদু ইলিশের বাজার এখনও জমেনি।কিছু দিনের মধ্যে এ বাজার জমতে পারে। তবে তার সঙ্গে আরেকটি সুখবর- আগামী এক দুই মাসের মধ্যে বাজারে আসছে ইলিশের তৈরি স্যুপ ও নুডলস।

ইলিশের স্যুপ ও নুডলস বাজারে আনার কাজে সংশ্লিষ্টরা বলছেন, শিগগির এই পণ্য বাজারে আসবে। এ পণ্য বাজারে আসলে শুধু ইলিশের মৌসুম নয়, সারা বছরই ইলিশের স্বাদ নিতে পারবেন গ্রাহকরা। 

পণ্যটির বাজারজাত করছে বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ভারগো ফিশ অ্যান্ড এগ্রো প্রসেস লিমিটেড। কোম্পানিটির নির্বাহী পরিচালক জামিল আহমেদ আরটিভি অনলাইনকে বলেন, তিন মাস আগে মৎস্য অধিদপ্তর এটির উদ্বোধন করেছে। আমাদের সব কাজ প্রায় শেষের দিকে। এখন মোড়কের বন্দোবস্ত করার কাজ চলছে। 

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন  : বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের গ্রাউন্ড স্টেশন উদ্বোধন কাল
--------------------------------------------------------

‘আমরা চাচ্ছি- একটা আকর্ষণীয় মোড়কেই এটা বাজারে আসুক।এর সঙ্গে কিছু আনুষঙ্গিক কাজ আছে, যা শেষ হলেই মানুষ এই স্যুপ ও নুডলসের স্বাদ নিতে পারবে।’

তিনি আরও বলেন, আমাদের মোটা দাগে আরেকটি কাজ বাকি আছে। সেটি হলো বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন- বিএসটিআই থেকে সনদ নেয়া। ওই কাজটি হয়ে যাওয়ার পর আমরা ইলিশের স্যুপ ও নুডলস বাজারে আনতে পারবো। আর সেটা ঈদের পরেই হতে পারে। 

ইলিশের স্যুপ ও নুডলসের উদ্ভাবক অধ্যাপক এ কে এম নওশাদ আলম এর আগে জানান, ইলিশ অধিক আমিষ ও চর্বির মাছ। তবে ইলিশের চর্বি মোটেও ক্ষতিকর নয়। চর্বিতে বিদ্যমান ওমেগা-৩ নামক অসম্পৃক্ত ফ্যাটি অ্যাসিড রক্তে ক্ষতিকর কোলেস্টেরল কমিয়ে হৃদ্‌রোগের ঝুঁকি কমায় এবং শরীরকে সুস্থ ও সতেজ রাখে। ফলে সারা বছর ক্রেতারা ইলিশের স্বাদ পূরণ করতে পারবেন এই স্যুপ ও নুডলসের মাধ্যমে।

নওশাদ আলম বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের মৎস্যপ্রযুক্তি বিভাগের জ্যেষ্ঠ অধ্যাপক। 

তিনি বলেন, এক হাজার টাকা দামের একটি ইলিশ থেকে ছোট আকৃতির ২০০টি কিউব তৈরি করা সম্ভব। প্রতিটি কিউবের বাজারমূল্য ২০ টাকা। একটি কিউব দিয়ে ইলিশের হুবহু স্বাদের এক-দুজনের জন্য স্যুপ তৈরি করা সম্ভব। ইলিশের স্বাদ অপরিবর্তিত রেখে কিউবগুলোকে রেফ্রিজারেটরে এক বছর পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যাবে। ইলিশ সংরক্ষণের এই প্রযুক্তি বিশ্বে প্রথম। বিশেষ পদ্ধতিতে ইলিশের নুডলসও তৈরি করা হয়েছে। সারা বছর যে কেউ সাশ্রয়ী মূল্যে ইলিশের স্বাদ গ্রহণ করতে পারবেন।

ভার্গো ফিস সূত্রে জানা গেছে,  গত বছরের আগস্টে এই প্রযুক্তির উদ্ভাবন করা হয়। এরপর গবেষকরা স্যুপের মান বাড়ানোর উপর কাজ করেন।

আরও পড়ুন  : 

এসআর

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়