• ঢাকা বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

এখন আর অ্যাকর্ড-অ্যালায়েন্সের প্রয়োজন নেই: বাণিজ্যমন্ত্রী

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১৭ জুলাই ২০১৮, ১৭:২০ | আপডেট : ১৭ জুলাই ২০১৮, ১৮:৫২
অপ্রত্যাশিত রানা প্লাজা দুর্ঘটনার পর বাংলাদেশে আর কোনও দুর্ঘটনা ঘটেনি। সরকার ও কারখানার মালিকদের সম্মিলিত ব্যবস্থা গ্রহণের ফলে এটা সম্ভব হয়েছে। এরইমধ্যে দেশের তৈরি পোশাক কারখানাগুলোয় প্রয়োজনীয় সংস্কার করা হয়েছে। কারখানাগুলো তদারকি করার জন্য অ্যাকর্ড ও অ্যালায়েন্সর এখন আর প্রয়োজন নেই। বললেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

মঙ্গলবার ঢাকায় হোটেল পূর্বাণীতে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় আয়োজিত ‘ক্যাপাসিটি বিল্ডিং অব রিমেডিয়েশন কো-অর্ডিনেশন সেল (আরসিসি) শেয়ারিং প্রোগ্রেস অ্যান্ড ওয়ে ফরওয়ার্ড’ শীর্ষক কর্মশালায় তিনি এ কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আন্তর্জাতিক ক্রেতাদের জোট অ্যাকর্ড ও অ্যালায়েন্সকে ৫ বছরের জন্য দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছিল। গত ৭ মে তাদের মেয়াদ শেষ হয়েছে। কার্যক্রম গুটিয়ে নেয়ার জন্য ৬ মাস মেয়াদ বৃদ্ধি করা হয়েছে। আর কোনও সময় বাড়ানো হবে না। এখন রিমেডিয়েশন কো-অর্ডিনেশন সেল (আরসিসি) বা সংস্কার সমন্বয়ক সেল তৈরি পোশাক কারখানাগুলোর কাঠামো, অগ্নি ও বৈদ্যুতিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে দায়িত্ব পালন করবে।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, তৈরি পোশাক খাতকে নিরাপদ ও কর্মবান্ধব করে গড়ে তুলেছে বাংলাদেশ। শ্রম আইন সংশোধন করে শ্রমিকদের অধিকার নিশ্চিত করা হয়েছে। বিপুল অর্থ বিনিয়োগে আধুনিক করা হয়েছে তৈরি পোশাক কারখানাগুলো। বিশ্বমানের কারখানায় বাংলাদেশে পোশাক তৈরি হচ্ছে। কিন্তু তৈরি পোশাক ক্রেতারা (বিদেশিরা) মূল্য বৃদ্ধি করছে না। তৈরি পোশাকের মূল্যবৃদ্ধি করতে হবে।

অনুষ্ঠানে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক, সচিব আফরোজা খানম, এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, বিজিএমইএর সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান, ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন, ইউরোপিয়ন ইউনিয়ন ও নরওয়ের রাষ্ট্রদূত, অ্যাকর্ড, অ্যালায়েন্স, বিকেএমইএ এবং শ্রমিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা বক্তব্য দেন।

এসআর/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়