১০ টাকার শেয়ারে ১২.৫০ টাকা লভ্যাংশ দেবে গ্রামীণফোন

প্রকাশ | ১৬ জুলাই ২০১৮, ১৩:০১ | আপডেট: ১৬ জুলাই ২০১৮, ১৩:২০

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত গ্রামীণফোন লিমিটেড শেয়ারহোল্ডারদের জন্য অন্তর্বর্তীকালীন ১২৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। গত ৩০ জুন সমাপ্ত অর্ধবার্ষিক অর্থিক প্রতিবেদনের ভিত্তিতে কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ এ লভ্যাংশ ঘোষণা করে।

ঘোষিত লভ্যাংশ অনুযায়ী, গ্রামীণফোনের ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের প্রতিটি শেয়ারের বিপরীতে শেয়ারহোল্ডাররা ১২ টাকা ৫০ পয়সা নগদ লভ্যাংশ পাবেন।

ঘোষিত অন্তর্বর্তীকালীন লভ্যাংশেরর জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ৫ আগস্ট।

সোমবার দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন  : জাতীয় রপ্তানি পুরস্কার পেল ৬৩ প্রতিষ্ঠান
--------------------------------------------------------

এদিকে লভ্যাংশ ঘোষণার পাশাপাশি গ্রামীণফোনের পরিচালনা পর্ষদ চলতি বছরের এপ্রিল-জুন প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, গ্রামীনফোনের শেয়ারপ্রতি মুনাফা চলতি হিসাব বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে (২০১৮ সালের এপ্রিল-জুন) আগের বছরের তুলনায় বেড়েছে। দ্বিতীয় প্রন্তিকের মতো অর্ধবার্ষিক হিসাবেও কোম্পানিটির মুনাফা বেড়েছে।

চলতি হিসাব বছরের এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয়েছে ৮ টাকা। আগের বছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৫ টাকা ৮৭ পয়সা।

আর চলতি হিসাব বছরের জানুয়ারি-জুন এই ছয় মাসে প্রতিষ্ঠানটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয়েছে ১২ টাকা ৭৪ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে এই মুনাফার পরিমাণ ছিল ১০ টাকা ৭২ পয়সা।

মুনাফার পাশাপাশি কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য আগের বছরের তুলনায় বেড়েছে। ২০১৮ সালের ৩০ জুন শেষে কোম্পানিটির প্রতিটি শেয়ারের বিপরীতে সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৩০ টাকা ৭৩ পয়সা, যা ২০১৭ সালের ৩০ জুন শেষে ছিল ২৬ টাকা ৫৯ পয়সা।

ডিএসইর তথ্য অনুযায়ী, কোম্পানিটির ৯০ শতাংশ উদ্যোক্তা পরিচালকদের, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের ৪.৫৫ শতাংশ,  বিদেশি উদ্যোক্তাদের কাছে ৩.৪২ শতাংশ এবং মাত্র ২ শতাংশ শেয়ার আছে সাধারণ শেয়ারহোল্ডারদের কাছে।  

আরও পড়ুন  : 

এসআর