• ঢাকা বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

ভারতে এখনও পেঁয়াজ ১২ রুপি!

আরটিভি অনলাইন ডেস্ক
|  ১৩ মে ২০১৮, ১৬:৫৭ | আপডেট : ১৩ মে ২০১৮, ১৯:১৫
ছবি সংগৃহীত
ভারতে আলুর দাম কিছুদিন ধরেই ঊর্ধ্বমুখী। এবার পেঁয়াজের দামও চড়তে শুরু করেছে। গত দুই মাস ধরে পেঁয়াজের দাম অনেকটা কম ছিল। এখনও পাইকারি বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম পড়ছে সাড়ে ১২ রুপির মতো। আর খুচরা বাজারে গিয়ে তা ঠেকছে আরও দুই-তিন রুপি বেশিতে।

বাংলাদেশের বাজারে যখন পণ্যটির দর হাফ সেঞ্চুরির পথে, ঠিক সে সময়ে দাম বাড়ার এই খবর দিচ্ছে দেশটির সংবাদ মাধ্যম  ‘বর্তমান’।

‘বর্তমান’ বলছে, এখন পেঁয়াজের দাম ১৬ রুপির আশপাশে চলে এসেছে খুচরা বাজারে। রাজ্যে উৎপাদিত পেঁয়াজ কমে আসার কারণেই দাম বাড়ছে বলে মনে করছে সংশ্লিষ্ট মহল।

আগামী জুন মাসের কিছুদিন পর্যন্ত রাজ্যের পেঁয়াজ থেকে যাবে বলে আশা করা হয়েছিল। কিন্ত কালবৈশাখীর জন্য জেলাগুলোতে ঘন ঘন বৃষ্টি হওয়ায় মজুত পেঁয়াজের ক্ষতি হয়েছে।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : রোজায় শেয়ারবাজারে লেনদেন আধা ঘণ্টা আগে
--------------------------------------------------------

নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রীর দামের উপর নজরদারির জন্য গঠিত সরকারি টাস্ক ফোর্সের সদস্য কমল দে জানিয়েছেন, বৃষ্টির জন্য কিছুটা আগেই রাজ্যে উৎপাদিত পেঁয়াজ শেষ হয়ে যেতে পারে। বৃষ্টির জেরে এখানকার পেঁয়াজের দাম ইতোমধ্যে অনেকটা বেড়ে গিয়েছে। কয়েকদিন আগে ৪০ কেজি পেঁয়াজের বস্তা পাইকারি বাজারে ৩৫০ রুপির আশপাশে বিক্রি হচ্ছিল। এখন তা ৫০০ রুপিতে উঠে গেছে।

পাইকারি বাজারেই প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম পড়ছে সাড়ে ১২ রুপির মতো।

দেশটির কৃষিবিদরা মনে করেন, সংরক্ষণের ভালো ব্যবস্থা থাকলে রাজ্যে উৎপাদিত পেঁয়াজ আরও বেশ কিছুদিন চালানো যেত। এতে কৃষকরা দাম বেশি পেয়ে উপকৃত হতেন। এবারও মাত্র চার-পাঁচ রুপি কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি করেছেন কৃষকরা।

পেঁয়াজ সংরক্ষণ করা গেলে সাধারণ মানুষ আরও বেশি সময় কম দামে তা পেতেন।

আরও পড়ুন :

এসআর

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়