• ঢাকা শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫

‘ব্যাংক লুটে সংকটে ভারত’

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ০৭ মে ২০১৮, ১৯:১৭
চলতি মেয়াদে ভারতের ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি অর্থনীতিসহ অন্যান্য খাতে যেসব সফলতা এনেছেন, তা গুটি কয়েক বাক্যে উল্টে দিয়েছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহ।

তিনি আজ সোমবার বেঙ্গালুরুতে নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে জানান, নরেন্দ্র মোদির সরকার ‘বিপদগামী নীতি’ ও  ‘অর্থনৈতিক অব্যবস্থাপনার’ মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। যা দেশকে অর্থনৈতিক সংকটে ফেলছে। অথচ ওই সংকট কাটিয়ে তোলা সম্ভব ছিল।

ব্যাংক খাতের সিরিজ জালিয়াতির কথা তুলে ধরে তিনি  বলেন, ২০১৩ সালে ব্যাংকগুলোতে অর্থ জালিয়াতির পরিমাণ ছিল মাত্র ২৮ হাজার কোটি রুপি; মাত্র ৪ বছরে তা বেড়ে হয়েছে এক লাখ ১১ হাজার কোটি রুপি।

অথচ এই জালিয়াতির হর্তাকর্তারা এখনও ধরাছোঁয়ার বাইরে আছেন বলে জানান মনমোহন সিংহ। তিনি বলেন, মোদি সরকারের অর্থনৈতিক অব্যবস্থাপনায় ব্যাংকিং খাতে সাধারণ জনগণের আস্থা উঠে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, ভারত এখন কঠিন সময় পার করছে। আমাদের কৃষকরা তীব্র সংকটের মুখে পড়েছে। আমাদের যুব সমাজ ঠিকমতো সুযোগ সুবিধা পাচ্ছে না। প্রত্যাশার তুলনায় অর্থনীতির অগ্রগতি নেই।

সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী এসময় সরকারের হঠাৎ নোট বাতিল ও নতুন ভ্যাট ব্যবস্থাপনা চালুর ব্যাপারেও সমালোচনা করেন।

মোদি সরকারের তুলোধোনা করে তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের ভুলভাল নীতির জন্য ভারতের বিরাট ক্ষতি হয়ে যাচ্ছে। সব থেকে বড়ো দুটি ভুল হলো নোট বাতিল ও হঠকারীভাবে নতুন ভ্যাট- জিএসটি চালু করা। এর ফলে চূড়ান্ত ক্ষতির মুখে পড়েছে সাধারণ মানুষ এবং গ্রামীণ অর্থনীতি।

পেট্রোলের দামও যেভাবে দিনের পর দিন বেড়ে চলেছে তাতেও মোদি সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন মনমোহন।

তথ্যসূত্র: ইন্ডিয়াটুডের

এসআর 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়