টয়োটা কি গাড়ির দাম বাড়াবে?

প্রকাশ | ০৪ মার্চ ২০১৮, ১৬:৩৯ | আপডেট: ০৪ মার্চ ২০১৮, ১৭:০০

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট

স্টিল ও অ্যালুমিনিয়াম শিল্পে চীনের কাছে কাবু যুক্তরাষ্ট্র। কারণ চীন অন্যান্য দেশের তুলনায় অনেক কম দামে পণ্য ছেড়ে দিচ্ছে বলে অভিযোগ। এতে বহুদিন ধরে দানা বেঁধেছে মার্কিন-চীন বাণিজ্য যুদ্ধ। শুধু চীন নয়, যুক্তরাষ্ট্র এই বাণিজ্য দ্বন্দ্বে যুদ্ধে নেমেছে ইউরোপ, কানাডার সঙ্গেও।

আর এই বাণিজ্যে কোনো প্রকার ছাড় দিতে রাজি নয় ট্রাম্প প্রশাসন। শুল্কনীতিকে অস্ত্র বানিয়ে হুঙ্কার দিচ্ছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি গাড়ি শিল্পের কাঁচামাল স্টিল ও অ্যালুমিনিয়ামের উপর নতুন কর বসাতে যাচ্ছেন; যা আগামী সপ্তাহে আরোপ হতে পারে।

আর এতেই তেলেবেগুনের মতো জ্বলে উঠছে গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো। তারা আশঙ্কা করছে, ট্রাম্পের এ ধরনের সিদ্ধান্তে অটো খাত মুখ থুবড়ে পড়বে। দাম বাড়াতে হবে গাড়ির।

টয়োটা সতর্ক করে বলেছে, ট্রাম্পের সিদ্ধান্ত কার্যকরের পর  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গাড়ি ও ট্রাকের দাম বাড়বে।

ট্রাম্পের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে আমদানি করা স্টিলের ওপর ২৫ শতাংশ শুল্ক এবং আমদানি করা অ্যালুমিনিয়ামের উপর ১০ শতাংশ শুল্ক বসছে।

বিষয়টি নিয়ে গেলো সপ্তাহে ট্রাম্প ঘোষণা দেন, আগামী সপ্তাহে এটি সই হবে। এতে নিজ দেশের গাড়ি নির্মাতা কোম্পানিগুলো বাইরের দেশের কোম্পানিগুলোর সঙ্গে প্রতিযোগিতা করতে পারবে।   

এ ঘোষণা দেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর প্রধান প্রধান গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো নতুন শুল্কের বিরুদ্ধে প্রতিক্রিয়া জানায়।

টয়োটা বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে বলেছে, স্টিল ও অ্যালুমিনিয়ামের ট্যারিফ বাড়ানোতে ট্রাম্প প্রশাসন গাড়ি শিল্প ও ভোক্তাদের প্রভাবিত করছে।

যদিও কোম্পানিটি দাবি করেছে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নির্মিত গাড়ির জন্য কেনা স্টিল এবং অ্যালুমিনিয়ামের ৯০ শতাংশেরও বেশি দেশেই পাওয়া যায়। তবু নতুন করে শুল্ক যোগ কোম্পানিটির ওপর নেগেটিভ প্রভাব ফেলবে। পরোক্ষভাবে ভোক্তাদেরই তার দায় নিতে হবে।  এমনকি এ খাতের সঙ্গে সংশ্লিষ্টদেরও বোঝা টানতে হবে।

আরও পড়ুন:

এসআর