• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫

বিদ্যুৎ খাতে ৩ হাজার ৬৪২ কোটি টাকা দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৫:১৪ | আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৫:২৪
বিশ্বব্যাংকের সহায়তায় বিদ্যুৎ ব্যবস্থার উন্নয়নে বড় উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। দেশের পূর্বাঞ্চলীয় গ্রিড নেটওয়ার্কের পরিবর্ধন ও ক্ষমতায়নে ব্যয় হবে ৫ হাজার ৮০৩ কোটি টাকা। এ টাকার মধ্যে বিশ্বব্যাংক দিবে ৩ হাজার ৬৪২ কোটি টাকা।

আজ মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় এ সংক্রান্ত প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়।

সভায় মোট ১৫টি প্রকল্পের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে মোট ব্যয় হবে ১৭ হাজার ৯৮৭ কোটি ২৩ লাখ টাকা।

একনেক সভা শেষে প্রকল্পগুলো নিয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।  এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনা সচিব জিয়াউল ইসলাম, সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য ড. শামসুল অালম প্রমুখ।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, আজকের সভায় ১৫টি (নতুন ও সংশোধিত) প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে মোট ব্যয় হবে ১৭ হাজার ৯৮৭ কোটি ২৩ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারি অর্থায়ন করা হবে ১১ হাজার ৯৪০ কোটি ৩২ লাখ টাকা, সংস্থার নিজস্ব অর্থায়নে ব্যয় করা হবে ৫২৩ কোটি ৬৯ টাকা এবং প্রকল্প সাহায্য ৫ হাজার ৫২৩ কোটি ২২ লাখ টাকা।

তিনি জানান, পূর্বাঞ্চলে বিদ্যুতের শক্তিশালী ও বর্ধিত ক্ষমতা সম্পন্ন সঞ্চালন ব্যবস্থা নির্মাণ করা জরুরি। দেশের পূর্বাঞ্চল তথা বৃহত্তর কুমিল্লা, নোয়াখালী ও চট্টগ্রামে গ্রিড নেটওয়ার্ক শক্তিশালীর পরিকল্পনা করা হয়েছে। এ প্রকল্পের মাধ্যমে এসব এলাকার বিদ্যমান সঞ্চালন অবকাঠামো পরিবর্তন হবে। কেননা এ অঞ্চলের বিদ্যুৎ গ্রিড বহু পুরাতন এবং প্রয়োজনের তুলনায় সঞ্চালন ক্ষমতা অপ্রতুল।

প্রকল্প বাস্তবায়নে মোট ব্যয়ের মধ্যে সরকরের নিজস্ব তহবিল থেকে ১ হাজার ৬৮৩ কোটি ৩৮ লাখ টাকা, বিশ্বব্যাংকের ঋণ থেকে ৩ হাজার ৬৪২ কোটি ৪৮ লাখ টাকা এবং প্রকল্প বাস্তবায়নকারী সংস্থা পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশের তহবিল থেকে ৪৭৮ কোটি ৭ লাখ টাকা ব্যয় করা হবে।

প্রকল্পের আওতায় ১২ দশমিক ৬৩ কিলোমিটার ৪০০ কেভি সঞ্চালন লাইন নির্মাণ করা হবে। এ সঙ্গে ১৭৫ দশমিক ৯১ কিলোমিটার ২৩০ কেভি সঞ্চালন লাইন নির্মাণ, ২৫৬ দশমিক ৩ কিলোমিটার ১৩২ কেভি সঞ্চালন লাইন নির্মাণ, ২টি ৪০০ কেভি সাব-স্টেশন, ২টি ২৩০ কেভি সাব-স্টেশন, ১০টি ১৩২ কেভি সাব-স্টেশন এবং ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম উন্নতকরণ এবং ৮৬ একর ভূমি অধিগ্রহণ করা হবে।

এসআর

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়