ডানা মেলছে বিমান বাংলাদেশ

প্রকাশ | ২২ জানুয়ারি ২০১৮, ১২:১৪ | আপডেট: ২২ জানুয়ারি ২০১৮, ১২:৪৫

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট

সমুদ্র থেকে ৪৩ হাজার ফুট উঁচু। সেখানেও মিলবে ওয়াই ফাই। প্রিয়জনের সঙ্গে ফেলে আসা কথাগুলো সেরে ফেলা যাবে ফোনে। থাকবে ক্লাসিক থেকে ব্লকবাস্টার মুভি; বিভিন্ন ঘরানার মিউজিক, ভিডিও গেমস। থাকবে টিভি চ্যানেলের লাইভ স্ট্রিমিং। অনলাইন কেনাকাটার সুবিধা। আরো কত কী? এমন সব সুবিধা নিশ্চিত করে আরামদায়ক ভ্রমণে এবার একমুঠো স্বপ্নে বিভোর বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন: রাশিয়ায় পোশাকেও সুবিধা চান বাণিজ্যমন্ত্রী
--------------------------------------------------------

আকাশপথে এমন স্বপ্ন সার্থক করতে আধুনিক মডেলের নতুন উড়োজাহাজ নিয়ে আসছে প্রতিষ্ঠানটি। এজন্য বোয়িং ৭৮৭-৮ মডেলের উড়োজাহাজকে বেছে নিয়েছে জাতীয় পতাকাবাহী এই বিমান সংস্থা।

বাংলাদেশ বিমান এয়ারলাইন্স জানিয়েছে, শতকরা ২০ ভাগ জ্বালানী সাশ্রয়ী বিমানের নতুন সংযোজন ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজে থাকছে ২৪টি বিজনেস ক্লাস এবং ২৪৭টি ইকোনমি ক্লাসসহ সর্বমোট ২৭১টি আসন। তুলনামূলক বড় জানালা নির্জন ও শান্ত কেবিন, মুড লাইট ইত্যাদি কারণে এই উড়োজাহাজে ভ্রমণকারী যাত্রীরা পাবেন সতেজ ও আনন্দময় অভিজ্ঞতা।

বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও এ এম মোসাদ্দিক আহমেদ বলেন, ২০১৮ সালে বিমান বহরে দুটি নতুন বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজ যুক্ত হওয়ার পাশাপাশি নতুন গন্তব্যে বিমান তার ডানা প্রসারিত করতে চায়।

তিনি বলেন, বিমান এ বছর চীনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্যিক নগরী গুয়াংজু, শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বো এবং মালদ্বীপের রাজধানী মালেতে তার নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণের উদ্যোগ নিয়েছে।

বিমান বাংলাদেশের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) শাকিল মেরাজ জানান, বিগত ৪৬ বছরে বিমান বাংলাদেশ ৫ কোটি ২৫ লাখ যাত্রী পরিবহন করেছে। সদ্য বিদায়ী অর্থবছর অর্থাৎ ২০১৬-২০১৭ অর্থবছরে বিমান নিট মুনাফা করেছে ৪৭ কোটি টাকা। একই সময়ে রাষ্ট্রীয় কোষাগারে ৩৮১ কোটি টাকা রাজস্ব প্রদান করেছে। 

নতুন ড্রিমলাইনার যোগ হলে এ খাত আরো সমৃদ্ধ হবে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন: 

এসআর