ব্রাজিলে শুল্কমুক্ত সুবিধা চায় বাংলাদেশ

প্রকাশ | ১৯ নভেম্বর ২০১৭, ১৫:৫৮ | আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০১৭, ১৬:৩৪

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট

ব্রাজিলের বাজারে বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের ব্যাপক চাহিদা আছে। কিন্তু সেদেশে শুল্ক অনেক বেশি। তাই দুই দেশের বাণিজ্যিক সম্পর্ক আরো বাড়াতে শুল্কমুক্ত সুবিধা দরকার।

আজ রোববার সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের নিজ কার্যালয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন ঢাকায় নিযুক্ত ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূত জও তাবাজোরা ডি. ওলিভেইলা জুনিয়র। এ সময় বাণিজ্যমন্ত্রী এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, প্রতিবছর বন্ধুপ্রতীম দুই দেশের মধ্যে ১২০ কোটি ডলারের বেশি বাণিজ্য হয়। সেখানে বাংলাদেশ মাত্র সাড়ে ১১ কোটি ডলারের পণ্য রপ্তানি করে। যা নিতান্তই কম। শুল্কমুক্ত সুবিধা পেলে পোশাক খাতে বাংলাদেশ আরো বেশি রপ্তানি করতে পারবে।

তিনি কোটা ও ডিউটি ফ্রি সুবিধা পেতে সে দেশের সরকারের প্রতি আহবান জানান।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ব্রাজিল যদি বাংলাদেশকে শুল্ক ও কোটামুক্ত সুবিধা না দেয় তাহলে আমাদের সঙ্গে ফ্রি ট্রেড এগ্রিমেন্ট (এফটিএ) করার প্রস্তাব দিয়েছি। এ চুক্তি হলে উভয় দেশ শুল্ক বা কোটামুক্ত পণ্য রপ্তানি করতে পারবে। এফটিএ সই হলে ব্রাজিলের বাজারে বাংলাদেশের পোশাক স্থান করে নিতে পারবে। শিগগিরই আমরা ব্রাজিলের সঙ্গে এফটিএ নিয়ে আলোচনা শুরু করবো। আমাদের প্রতিনিধি দল এ বিষয়ে আলোচনা করতে আগামী বছর ব্রাজিল সফর করবে।

তিনি বলেন, আমরা ব্রাজিলকে বাংলাদেশের ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগের প্রস্তাব দিয়েছি। বাংলাদেশের চামড়া, চামড়াজাত পণ্য ও জুতার প্রতি ব্রাজিলের বেশ আগ্রহ আছে।

ঢাকায় নিযুক্ত ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূত বলেন, আমরা দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য বিনিময় করতে চাই। আগামী বছরের মার্চ মাসে বাণিজ্য বাড়াতে উভয় দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক আলোচনা শুরু হবে।

 

এসআর