• ঢাকা বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

‘বাংলাদেশ ছাড়ছে না শেভরন’

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৭ অক্টোবর ২০১৭, ০৮:২৩ | আপডেট : ২৭ অক্টোবর ২০১৭, ০৮:২৭
বাংলাদেশ ছাড়ছে না মার্কিন বহুজাতিক কোম্পানি শেভরন। বাংলাদেশে গ্যাসক্ষেত্র বিক্রির সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে তারা। বিবিয়ানায় গ্যাস কম্প্রেসর স্থাপনে বিনিয়োগের প্রস্তাব দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

বৃহস্পতিবার বিদ্যুৎ ভবনে আয়োজিত সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্রের চুক্তি সই অনুষ্ঠানে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ এ তথ্য জানান।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, শেভরন বাংলাদেশ ছাড়ছে না। বিবিয়ানায় আরো ৪০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে প্রতিষ্ঠানটি। কম্প্রেসর স্থাপনের জন্য তারা এ বিনিয়োগের প্রস্তাব করেছে।

২০১৪ সালে বিবিয়ানা গ্যাসক্ষেত্রের উৎপাদন বাড়াতে একটি কম্প্রেসর স্থাপনের জন্য পেট্রোবাংলার কাছে প্রস্তাব দেয় শেভরন। পাশাপাশি গ্যাসের দাম বাড়ানোর দাবিও জানায় কোম্পানিটি। তবে ক্ষেত্রটিতে গ্যাসের যে চাপ রয়েছে, তাতে এ কম্প্রেসর স্থাপনের প্রয়োজনীয়তা নেই জানিয়ে সে সময় শেভরনের প্রস্তাবে রাজি হয়নি পেট্রোবাংলা।

গত বছর হঠাৎ করেই বাংলাদেশের তিনটি গ্যাসক্ষেত্র বিবিয়ানা, মৌলভীবাজার ও জালালাবাদ বিক্রির ঘোষণা দেয় শেভরন। এ বিষয়ে হিমালয়া নামের চীনের একটি কোম্পানির সঙ্গে চুক্তিও করে প্রতিষ্ঠানটি। এছাড়া সরকার নিজেও গ্যাসক্ষেত্র কেনার বিষয়ে আগ্রহী ছিল, যার জন্য মার্কিন প্রতিষ্ঠান উড ম্যাকেঞ্জিকে দিয়ে শেভরনের সম্পদের ওপর জরিপও চালানো হয়। পেট্রোবাংলার অনুমতি ছাড়াই চীনা কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি করায় শেভরনের সম্পদ হস্তান্তরের বিষয়টি আটকে দেয় সরকার। এরপর শেভরন কর্তৃপক্ষ সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ে দেনদরবার শুরু করে। ৮ অক্টোবর প্রতিষ্ঠানটির এক ঊর্ধ্বতন প্রতিনিধি দল পেট্রোবাংলা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে। এ সময় তারা কম্প্রেসর স্থাপন ও দাম বাড়ানোর প্রস্তাব নতুন করে উত্থাপন করে। এ সময় বিবিয়ানায় ৪০ কোটি ডলার বিনিয়োগে কম্প্রেসর স্থাপন ও প্রতি ইউনিট (এক হাজার ঘনফুট) গ্যাসের দাম ২ ডলার ৭৬ সেন্ট থেকে বাড়িয়ে ৩ ডলার করার প্রস্তাব দেয়।

এসআর

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়