• ঢাকা বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫

বাংলাদেশে উৎপাদন হবে স্যামসাং-এলজির পণ্য: বাণিজ্যমন্ত্রী

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৩ অক্টোবর ২০১৭, ১৮:৪৫ | আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০১৭, ১৯:০২
বাংলাদেশে বড় বিনিয়োগের পরিকল্পনা করেছে কোরিয়া। দেশটির ইলেকট্রিক কোম্পানি স্যামসাং ও এলজির সব পণ্য বাংলাদেশেই উৎপাদন হবে। যৌথ বিনিয়োগে এ সব কোম্পানি গড়ে উঠবে। বললেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

আজ সোমবার সচিবালয়ে নিজ কার্যালয়ে ঢাকায় নিযুক্ত দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত অন সিয়ং-ডু এর সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি সাংবাদিকদের এ সব কথা বলেন।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব শুভাশীষ বসু এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী বলেন, কোরিয়ান এক্সপোর্ট প্রসেসিং জোনের (কেইপিজেড) এর পাশাপাশি কোরিয়ার বিনিয়োগকারীরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগ করবে। বাংলাদেশে কারখানা স্থাপন করে পণ্য উৎপাদন করে রপ্তানি করলে বেশি লাভবান হবে তারা।

এ মুহূর্তে কোরিয়ার সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্য ১৫০৬ দশমিক ৪৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। গত ২০১৬-২০১৭ অর্থবছরে বাংলাদেশ দক্ষিণ কোরিয়ায় রপ্তানি করেছে ২৩৮ দশমিক ২৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের পণ্য, একই সময়ে আমদানি হয়েছে ১২৬৮ দশমিক ২ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের পণ্য।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, দক্ষিণ কোরিয়া বাংলাদেশের তৈরি বেশকিছু পণ্য রপ্তানির ক্ষেত্রে শুল্ক ও কোটামুক্ত সুবিধা দিয়েছে। এ সুবিধা নেয়ার জন্য ব্যবসায়িক জটিলতা দূর করতে উভয় দেশ কাজ করে যাচ্ছে। উভয় দেশের মধ্যে বাণিজ্য বাড়াতে চলতি বাণিজ্য ব্যবধান কমানো হবে।

তিনি বলেন, দক্ষিণ কোরিয়ার প্রায় ২০০ প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশের ইপিজেডে বিনিয়োগ করেছে। আরো অনেক কোম্পানি বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেছে। বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে কোরিয়ার বিনিয়োগকারীদের জন্য বরাদ্দ দেওয়া হবে। এজন্য উভয় দেশের ব্যবসায়ীদের মধ্যে যোগাযোগ বাড়ানো হবে।

দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত বলেন, কোরিয়ার বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে বেশ আগ্রহী। স্যামসাং ও এলজি ইলেক্ট্রনিক কোম্পানি যৌথ বিনিয়োগের মাধ্যমে বাংলাদেশে বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এতে করে বাংলাদেশের সাথে দক্ষিণ কোরিয়ার বাণিজ্য বাড়বে এবং বাণিজ্য ব্যবধান কমে আসবে। কোরিয়া এ বিষয়ে বাংলাদেশকে সব ধরনের সহায়তা দেবে।

এমসি/এসআর

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়