• ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫

জ্বালানি তেলের চাহিদার সঙ্গে উৎপাদনও কমবে

অনলাইন ডেস্ক
|  ১১ আগস্ট ২০১৬, ১৭:৩১
বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দার কারণে আসছে বছর বিশ্বে জ্বালানি তেলের চাহিদা কমবে। ফলে চলতি বছরের তুলনায় ওই বছর এর উৎপাদন কমে যাবে। এতে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে তেল উৎপাদনকারী দেশগুলো।

এ আশঙ্কা জানিয়ে আন্তর্জাতিক জ্বালানি সংস্থা (আইইএ)বলছে, ২০১৭ সালে গোটা বিশ্বে প্রতিদিন ১ দশমিক ২ মিলিয়ন ব্যারেল তেল উৎপাদিত হবে। যা চলতি বছরের তুলনায় দশমিক ২ মিলিয়ন কম। শুধু তাই নয়, গেল মাসে আইইএ ঘোষিত পূর্বাভাসের চেয়ে ১ লাখ ব্যারেল কম।

এরই মধ্যে আন্তর্জাতিক বাজারে সরবরাহ বাড়ায় অপরিশোধিত তেলের দাম পড়ে গেছে। বিশেষ করে গেল মাসে তা ছিল চোখে পড়ার মতো।

জুনে এক ব্যারেল তেলের দাম ওঠে ৫২ ডলার পর্যন্ত। তবে এর পরের মাসেই তা ব্যাপক হারে কমে যায়। বৈশ্বিক চাহিদা কম ও সরবরাহ বাড়ায় এ পরিস্থিতি তৈরি হয়।

জুলাইতে প্রতিদিন তেলের সরবরাহ বাড়ে ৮ লাখ ব্যারেল। ওপেকভুক্ত দেশগুলোয় হুট করে তেলের উৎপাদন বাড়ায় আন্তর্জাতিক বাজারে সরবরাহ বাড়ে।

আইইএ জানায়, গেল মাসে গড়ে প্রতিদিন ওপেকভুক্ত দেশগুলোয় অপরিশোধিত তেলের উৎপাদন বাড়ে ১ লাখ ৫০ হাজার ব্যারেল। যা আট বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। আলোচিত সময়ে দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি তেল উৎপাদন করেছে সৌদি আরব। এর পরেই রয়েছে ইরাক।

সংস্থাটি আরো বলছে, গেল মাসে বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের মূল্য ব্যাপক হারে কমে যাওয়ার অন্যতম কারণ ছিল প্রচুর পরিমাণে মজুদ থাকা। তবে আসছে সময়ে এতে ভারসাম্য আসবে। যা তেলের মূল্য স্থিতিশীল রাখবে।          

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়