close
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | ১০ ফাল্গুন ১৪২৪

রাজধানীতে ভয়ঙ্কর নাশকতার পরিকল্পনা ছিল দুই জঙ্গির

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২০:৩৫ | আপডেট : ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২০:৪১
জঙ্গি তৎপরতায় জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তার নাজমুল ইসলাম ও নুরুজ্জামান লাবু রাজধানীতে ভয়ঙ্কর নাশকতার পরিকল্পনা করেছিলেন বলে জানিয়েছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানানো হয়।

ব্রিফিংয়ে র‌্যাব-২ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল আনোয়ার উজ জামান জানান, নাজমুল ইসলাম ও নুরুজ্জামান লাবু নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জেএমবির সদস্য। এর মধ্যে নুরুজ্জামান  ঝিনাইদহের জেএমবির আঞ্চলিক পর্যায়ের নেতা।

আনোয়ার উজ জামান বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নুরুজ্জামান জানিয়েছেন তিনি মাদ্রাসায় ভর্তি হলেও পড়ালেখা শেষ করেননি। একসময় জামায়াতে ইসলামের রাজনীতি শুরু করেন তিনি। পরে ২০১৫ সালে সাইফ ওরফে রুবেল ওরফে রবিন এবং সাগর ওরফে মারুফ ওরফে সোহাগ ওরফে শিহাব নামের দুই যুবকের হাত ধরে জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পড়েন নুরুজ্জামান। সাইফ তাকে অন্য ধর্মের মানুষদের হত্যা ও আক্রমণে প্ররোচিত করতেন। বিভিন্ন সময়ে ঝিনাইদহ জেলা স্কুলমাঠে ও একটি গ্যারেজে সমমনাদের নিয়ে গোপন বৈঠক করতেন তারা।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন: তেজগাঁও থেকে দুই ‘জঙ্গি’ আটক
--------------------------------------------------------

তিনি আরও জানান, নুরুজ্জামানকে জেএমবি থেকে একটি অটোরিকশা কিনে দেয়া হয়েছিল। সেই অটোরিকশা চালিয়ে তিনি এলাকার মুসলিম থেকে ধর্মান্তরিত খ্রিষ্টানদের অনুসরণ করতেন। কুপিয়ে হত্যা করতে ধর্মান্তরিত এক খ্রিষ্টানকেও অনুসরণ করতেন বলেও স্বীকারোক্তি দিয়েছেন নুরুজ্জামান। বোমা বানাতেও বিশেষভাবে পারদর্শী তিনি।

এই র‌্যাব কর্মকর্তা আরও জানান, মেরিন ইঞ্জিনিয়ার নাজমুল ইসলাম ধর্মীয় উগ্রবাদ বিষয়ে বই পড়ে জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধ হন। তিনি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে বিভিন্ন উগ্রবাদী পোস্ট শেয়ার করতেন। ২০১৫ সালের মার্চ মাসে ফেসবুকের মাধ্যমে আবু আবদুল্লাহ নামের এক ব্যক্তির সঙ্গে পরিচয় হয় তার। আবদুল্লাহর মাধ্যমেই জেএমবিতে জড়িয়ে পড়েন তিনি।

তিনি আরও জানান, জেএমবিতে জড়িয়ে পড়ার পর উচ্চ বেতনের চাকরিও ছেড়ে দেন নাজমুল। অনেকদিন ধরে তিনি পরিবার থেকে বিচ্ছিন্নও রয়েছেন। সম্প্রতি নাজমুল ইসলাম ও নুরুজ্জামান দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ইন্টারনেটের মাধ্যমে যোগাযোগ করে প্রায় অর্ধশত সমমনা লোকের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন।

এর আগে গতকাল সোমবার গভীর রাতে রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চলের সোনালী ব্যাংক মোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে নাজমুল ও নুরুজ্জামানকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব-২ এর একটি দল। এসময় তাদের কাছ থেকে দুটি চাপাতি, জঙ্গিবাদী বই ও ৭২৪ মার্কিন ডলারসহ বিভিন্ন সামগ্রী উদ্ধার করা হয়।

আরও পড়ুন:

এসএইচ/এসএস 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়