close
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৭ | ০৪ কার্তিক ১৪২৪

বিজ্ঞাপনের ফাঁদে আটকাতে প্রতারক চক্রের অপকৌশল

নাজিব ফরায়েজী
|  ১০ অক্টোবর ২০১৭, ১৪:৩১ | আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০১৭, ১৩:৫৩
বিদেশী টিভি চ্যানেলে প্রচারিত বিজ্ঞাপনের ফাঁদে আটকাতে নানা অপকৌশলের আশ্রয় নেয় প্রতারক চক্র। বাংলাদেশে তাদের কোন ঠিকানা দেয়া হয় না। যোগাযোগের জন্য দেয়া হয় একাধিক মোবাইল নম্বর। বলা হয় এই নম্বরে কল করলেই পৌঁছে দেয়া হবে পণ্য।

একে তো অবৈধ বিজ্ঞাপন। তার ওপর বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে যে পণ্যটি বিক্রি করা হচ্ছে তার আবার পুরোটাই প্রতারণা। দিনের পর দিন এমন বিজ্ঞাপন প্রচার করে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করা হলেও এসব বন্ধে সরকারের তেমন কোন উদ্যোগ নেই।

এই প্রতারক চক্রের খোঁজে মাঠে নামে আরটিভি’র সংবাদ দল। পরিচয় গোপন রেখে মোবাইল ফোনে হাতিরঝিলের এক ঠিকানায় অর্ডার দিলে পণ্য নিয়ে হাজির হন এক ব্যক্তি।

তবে তিনি যে প্যাকেটটি দিলেন তার গায়ে কোথাও বিএসটিআই বা ওষুধ প্রশাসনের অনুমোদন নেই। আছে কেবল ভারতের এক ঠিকানা। সরকারি অনুমোদন ছাড়া কীভাবে এসব পণ্য বিক্রি করছে? প্রতারক চক্রের এই সদস্যর কাছে জানতে চাইলে সব কিছুর দায় চাপান অফিসের কাঁধে। 

তাকে নিয়ে সেই অফিসে যেতে চাইলে জানালেন, মেমোতে ঠিকানা দেয়া আছে। এরপরই সটকে পড়েন।

এবার, মেমোতে দেয়া বাড্ডার এইচএমসি কোম্পানির ঠিকানায় যাত্রা। কিন্তু সেখানে গিয়ে ওই নামের কোন অফিসই পাওয়া গেলো না। অথচ দিনের পর দিন এমন প্রতারণা মাধ্যমে একটি চক্র কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিলেও কোন ব্যবস্থাই নিচ্ছে না সরকার।

তবে আশার কথা হলো তথ্য মন্ত্রী হাসানুল হক ইনু জানিয়েছেন, শুধু অশ্লীল বিজ্ঞাপনই নয় বিদেশী চ্যানেলের মাধ্যমে অবৈধ বিজ্ঞাপন প্রচার বন্ধেও কঠোর নজরদারি করা হবে।

মন্ত্রীর এমন আশার বাণী বাস্তবায়িত হলে তবেই শৃঙ্খলা ফিরবে টেলিভিশন বিজ্ঞাপন জগতে।

 

আরকে/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়