• ঢাকা বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

রাজশাহীতে শিশু হত্যায় ৩ জনের ফাঁসি

রাজশাহী প্রতিনিধি
|  ১৯ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৮:৩১ | আপডেট : ১৯ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৮:৪৭
রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার বেড়াবাড়ী ডাইংপাড়ার তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র শিশু রাব্বি অপহরণ ও হত্যা মামলায় তিনজনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। 

মঙ্গলবার দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক শিরীন কবিতা আখতার এ রায় দেন।

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন আবুল কাশেমের ছেলে মাজেদুর রহমান সাগর (১৯), হযরত আলীর ছেলে নাজমুল হক (২০), আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে রিপন সরকার লিটন (২০)। এছাড়া তাদের সবাইকে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়। 

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট এন্তাজুল হক বাবু বলেন, ফাঁসির তিন আসামির প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। মামলার অপর এক আসামি একই এলাকার আবুল কাশেমের স্ত্রী আসিনুর বেগমকে (৩২) যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া তিন আসামি আবুল কাসেম (৫০), আমিনুল ইসলাম (২৪) ও সাহাবুদ্দিনকে (২২) বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে। রায় ঘোষণার সময় সাত আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। 

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৪ সালের ২০ ডিসেম্বর সন্ধ্যা আনুমানিক সাড়ে ৬টার দিকে বেড়াবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র ফজলে হোসেন রাব্বি (১০)কে অপহরণ করা হয়। ওই দিনই দেহ থেকে মাথা ও ডান হাত বিচ্ছিন্ন করে মরদেহ বস্তায় ভরে জনৈক হাবিবুর রহমানের ধান ক্ষেতের ডিপটিউবওয়েলের নালায় পুঁতে রাখে হত্যাকারীরা। এরপর হত্যাকারীরা ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে রাব্বির পিতা মামলার বাদী আলী হোসেনকে মোবাইল করে। ২৪ ডিসেম্বর টাকা নিয়ে রাব্বিকে ছাড়ার কথা থাকলেও আসামিদের মোবাইল বন্ধ থাকে। আলী হোসেন প্রথম ২০ ডিসেম্বর মোহনপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি এবং ২৪ ডিসেম্বর এজাহার দায়ের করেন। এর দুই দিন পর ২৬ ডিসেম্বর শিশু রাব্বির মরদেহ উদ্ধার হয়। 

পুলিশ টেলিফোন কলের সূত্র ধরে আসামিদের গ্রেপ্তার করে। পরে আসামি সাগর ও আসিনুর বেগম দোষ স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলে ঘটনার বিষয় সামনে আসে। পরে পুলিশ মামলার তদন্ত করে সাতজনকে বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে।

এসএস 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়