• ঢাকা রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫

যতক্ষণ বর্জ্য আছে ততক্ষণ পরিচ্ছন্নকর্মী মাঠে থাকবে: ডিএসসিসি মেয়র

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৩ আগস্ট ২০১৮, ১৭:৫৩ | আপডেট : ২৩ আগস্ট ২০১৮, ১৮:২২
ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র সাঈদ খোকন বলেছেন- আমরা ঘোষণা দিয়েছিলাম, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বর্জ্য অপসারণ করব। সেই কাজ অনেকটাই সম্পন্ন হয়েছে। রাজধানীতে আজ ও আগামীকাল (শুক্রবার) পশু কুরবানি হবে। তাই যতক্ষণ পর্যন্ত কুরবানির বর্জ্য থাকবে ততক্ষণ পরিচ্ছন্নকর্মী মাঠে থাকবে। আমরা শতভাগ বর্জ্য অপসারণ করে সুন্দর নগরী উপহার দেব।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর নগর ভবনের সামনে বর্জ্য অপসারণ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, কুরবানির বর্জ্য অপসারণের কাজ এরইমধ্যে ৯০ শতাংশ সম্পন্ন হয়েছে। বর্জ্য অপসারণে ১১ হাজার ২৭১ জন পরিচ্ছন্নকর্মী কাজ করছেন।

-------------------------------------------------------
আরও পড়ুন :ঢাকা উত্তরের শতভাগ বর্জ্য অপসারণ: প্যানেল মেয়র
-------------------------------------------------------

তিনি আরও বলেন, আমাদের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ২০ হাজার মেট্রিকটন কুরবানির বর্জ্য হবে। এরই মধ্যে ১৫ থেকে ১৬ হাজার মেট্রিকটন বর্জ্য অপসারণ করা হয়েছে।  বাকি ২০ হাজার মেট্রিকটন বর্জ্য অপসারণ করে আমরা শতভাগ পরিষ্কার করে নগরবাসীকে পরিচ্ছন্ন নগরী উপহার দেব।

মেয়র বলেন, গেল বছরও প্রায় ২০ হাজার টন বর্জ্য অপসারণ করেছি। এবারও এ পরিমাণ বর্জ্য অপসারণ করার জন্য আমাদের সার্বিক প্রস্তুতি রয়েছে।

সাঈদ খোকন বলেন, আমরা প্রায় ৬০২টির মতো স্থান নির্ধারণ করেছি। পর্যাপ্ত ব্যবস্থাপনাও ছিল। কিন্তু এ পর্যন্ত আমরা সেভাবে নগরবাসীর সহযোগিতা পাইনি। তারপরও আমরা সম্মানিত নাগরিকদের অনুরোধ জানাচ্ছি, আমাদের ব্যবস্থাপনা রয়েছে, আপনারা নির্ধারিত স্থানে পশু জবাই করেন।

সুশীল সমাজের প্রতিনিধি সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, বর্জ্য অপসারণে সিটি করপোরেশন সন্তোষজনক কাজ করেছে। এটি প্রশংসনীয়। তবে নাগরিকরা নির্ধারিত স্থানে কুরবানি করেননি। আশা করছি, আগামীবার তারা এ বিষয়ে সচেতন হবেন।

আরও উপস্থিত ছিলেন ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা খান মোহাম্মদ বিলাল, স্থপতি মোবাশ্বের হোসেন, কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ প্রমুখ।

আরও পড়ুন :

এমসি/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়