• ঢাকা সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে পদত্যাগকৃত তিন কলেজশিক্ষকের পুনরায় বহালের চেষ্টা

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
|  ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:০৮ | আপডেট : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:১২

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে সরকারি মাহতাব উদ্দিন কলেজের পদত্যাগকৃত তিন শিক্ষকের বিরুদ্ধে পুনরায় স্বপদে বহাল হওয়ার চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে।

জানা গেছে, তৎকালীন সরকারদলীয় সংসদ সদস্য আঃ মান্নানের  হস্তক্ষেপে ২০১১ সালে পরিসংখ্যান বিভাগের প্রভাষক হিসেবে সরাফত হোসেন এবং ২০১২ সালে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে প্রভাষক হিসেবে শামীমা পারভীন ও বিশ্বজিৎ কুমার অধিকারী কলেজটি যোগদান করেন। যোগদানের পর থেকে কর্তব্য অবহেলা ও অনিয়মের  অভিযোগে ওঠে তাদের বিরুদ্ধে। এই কলেজের পাশাপাশি সরাফত হোসেন চট্টগ্রাম হালিশহর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং শামীমা পারভিন ও বিশ্বজিৎ কুমার অধিকারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চাকরি করে উভয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকেই বেতন, ভাতা ও সব সুবিধা নিতেন। এনিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে একাধিক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

আরও জানা গেছে, ২০১৬ সালে এই তিন শিক্ষক কলেজ পরিচালনা পর্ষদের চাপের মুখে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আব্দুল মজিদ মন্ডলের নিকট পদত্যাগপত্র জমা দেন। বিষয়টি ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার জানতে পেরে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষকে নির্দেশ দেন। ২০১৭ সালে ১৭ আগস্ট পরিচালনা পর্ষদের সভায় তাদের পদত্যাগপত্র গৃহীত হয়। এবছরের ৮ আগস্ট কলেজটি সরকারিকরণ হলে তারা পুনরায় স্বপদে বহাল হতে বিভিন্ন মহলে চেষ্টা করছেন। একটি মহল মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে পদত্যাগপত্র গ্রহণের তথ্য গোপন করে বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের নিকট দেনদরবার করে যাচ্ছেন।

এই ব্যাপারে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আব্দুল মজিদ মন্ডল বলেন, পদত্যাগকৃত শিক্ষকদের পুনরায় স্বপদে বহাল হওয়ার কোনও সুযোগ নেই।

কে/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়