• ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫

উদ্বোধনের রেশ না কাটতেই জাম্বুরী পার্কে ময়লা-আবর্জনায় সয়লাব

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি
|  ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২৩:৩২ | আপডেট : ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২৩:৫০
চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী আগ্রাবাদ জাম্বুরী মাঠকে সংস্কার করে সুন্দর ও নান্দনিক পার্কে রুপান্তর করা হলেও তা এখন দর্শনার্থীদের অবাধ চলাফেরায় অপরিচ্ছন্ন হয়ে উঠছে। উদ্বোধনের কয়েকদিনের মধ্যে ময়লা আবর্জনায় ভরে উঠছে চট্রগ্রামের প্রথম উন্মুক্ত বিনোদন কেন্দ্রটি।  

বৃহস্পতিবার সরেজমিনে গিয়ে এমন চিত্র দেখা যায়।

দেখা যায়, পার্কে থাকা লেকসহ পার্কের বিভিন্ন অংশে যত্রতত্র ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে জুস, পলিথিন, কাগজ, চিপসের প্যাকেটসহ বিভিন্ন ময়লা। যার ফলে সৌন্দর্য হারাতে বসেছে সবে মাত্র উদ্বোধন হওয়া পার্কটি।

পার্কে আগত দর্শনার্থীরা জানান, পার্কের মধ্যে ময়লা ফেলার জন্য নির্দিষ্ট কোনও পাত্র বা ডাস্টবিন না থাকায় যেখানে সেখানে ময়লা ফেলা হচ্ছে। পাশাপাশি নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও জোরদার করতে হবে। আগত দর্শনার্থীদের সচেতন করতে উদ্যোগ নিতে হবে। তাহলে পার্কটি চট্রগ্রামের সেরা বিনোদন কেন্দ্রে পরিণত হবে।

আবসার উদ্দিন নামে এক দর্শনার্থী বলেন জাম্বুরী মাঠ নামেই বলে দেয় এটা কখনও পার্ক ছিল না। এর বড় অংশ ছিল পরিত্যক্ত ও ময়লা আবর্জনা। অন্য অংশে আশেপাশের শিশু কিশোররা খেলতো। এ মাঠে খেলে অনেকে নামী-দামী প্লেয়ার উঠে এসেছেন। পার্ক করার সময় এলাকাবাসী জানতো এখানে এলাকার শিশু কিশোরদের খেলার জন্য একটা ছোট অংশ রাখা হবে। কিন্তু তা রাখা হয়নি। সঠিক তথ্য জানানো হয়নি।

এলাকার এক প্রবীণ বাসিন্দা এতো সুন্দর একটি সুন্দর পার্ক উপহার দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, জীবনে অনেক হেঁটেছি, অনেক পথ পাড়ি দিয়েছি। আর হাঁটতে চাই না। আগামির কাণ্ডারী শিশু কিশোররা এখানে খেলবে। তাদের শারীরিক ও মানসিক বিকাশ হবে। আমাদের থেকেই তারা পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার শিক্ষা পাবে। কোনও পরিচ্ছন্ন কর্মীর প্রয়োজন নেই। তারাই এ পার্ক ও মাঠকে পরিচ্ছন্ন রেখে আগলে রাখবে।

সম্প্রতি গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন চট্টগ্রামের আগ্রাবাদে জাম্বুরী মাঠের সাড়ে আট একর জায়গার ওপর নির্মিত পার্কটি উদ্বোধন করেন। গণপূর্ত অধিদপ্তর সাড়ে ১৮ কোটি টাকায় প্রকল্পটি বাস্তুবায়ন করে। এখানে রয়েছে প্রায় আট হাজার ফুট হাঁটার পথ। পার্কের মাঝখানে রয়েছে প্রায় ৫০ হাজার বর্গফুট আয়তনের জলাধার। ২টি পানির ফোয়ারা।

এমসি/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়