• ঢাকা শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫

ভৈরবে দুটি হোটেলে অভিযান চালিয়ে নারীসহ আটক ১৮

ভৈরব প্রতিনিধি
|  ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৫:২৮ | আপডেট : ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৫:৩৯
ভৈরবে দুটি আবাসিক হোটেলে অভিযান চালিয়ে নারীসহ ১৮ জনকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে শহরের হোটেল শৈবাল ও সোনালী থেকে তাদেরকে আটক করা হয়েছে।

আটককৃতদের মধ্যে হোটেল মালিক ও তার বন্ধুসহ ১০ জন যৌনকর্মী ও আটজন খদ্দের রয়েছে।

পুলিশ জানায়, কিশোরগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো. শফিকুল ইসলাম ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক আবু বকর সিদ্দিকের নেতৃত্বে শহরের হলুদ পট্টি ও নিউ মার্কেটে অবস্থিত দুটি আবাসিক হোটেলে অভিযান চালানো হয়। এসময় হোটেল মালিক ও তার বন্ধুসহ ১০ জন যৌনকর্মী ও আটজন খদ্দেরকে আটক করা হয়।

এই দুটি হোটেলের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে যৌনকর্মী দিয়ে অসামাজিক কার্যকলাপ চালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ ছিল। এর আগেও হোটেল দুটিতে একাধিকবার পুলিশ অভিযান চালিয়ে বেশ কয়েকজন যৌনকর্মীসহ খদ্দেরকে আটক করে। এরপরেও অসামাজিক কার্যকলাপ বন্ধ হয়নি। পরে এসব অভিযোগের ভিত্তিতে জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশে একটি বিশেষ অভিযান চালানো হয়।

এসময় হোটেল শৈবালের মালিক হান্নান ও তার বন্ধু সোহেল মিয়াসহ ১০ পতিতা এবং আটজন খদ্দেরকে আটক করে গোয়েন্দা পুলিশ।

তাদের বিরুদ্ধে মানব পাচার প্রতিরোধ আইনে গোয়েন্দা পুলিশ বাদী হয়ে ভৈরব থানায় পৃথক দুটি মামলা করেন।

এ বিষয়ে কিশোরগঞ্জ জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো. শফিকুল ইসলাম আরটিভি অনলাইনকে জানান, ভৈরবে এই দুটি আবাসিক হোটেলে দীর্ঘদিন ধরে অসামাজিক কার্যকলাপ চলছিল। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রাতে অভিযান চালিয়ে ১৮ জনকে  আটক করা হয়েছে।

আরও পড়ুন :

জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়