দুই মাসেই পানির নিচে ৩৩ লাখ টাকার প্রকল্পের রাস্তা

প্রকাশ | ৩০ আগস্ট ২০১৮, ১৪:৩৫ | আপডেট: ৩০ আগস্ট ২০১৮, ১৫:১৯

তানভীর হায়দার, কিশোরগঞ্জ

কিশোরগঞ্জে কারিগরি ত্রুটি রেখে অপরিকল্পিতভাবে কাজ শেষ করায় ৩৩ লাখ টাকা প্রকল্পের রাস্তা দুই মাসেই পানিতে ভেসে গেছে। 

জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তারা বলছেন, হাওরের ঢেউ থেকে সুরক্ষার কোনও ব্যবস্থা না রেখে রাস্তাটি নির্মাণ করায় এমন দশা হয়েছে।

কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ উপজেলার হাওর অধ্যুষিত দুটি গ্রাম সুতারপাড়া ও খাকশ্রী। হাওরের ঢেউয়ে গ্রাম দুটি বহুবার ভাঙনের শিকার হওয়ায় একটি বেসরকারি সংস্থার উদ্যোগে প্রতিরক্ষা দেয়াল নির্মাণ করা হয়।

পরে এ অঞ্চলের মানুষের চলাচলের সুবিধার্থে দেয়ালটির বাইরে প্রায় সাড়ে তিন কিলোমিটার রাস্তা নির্মাণের জন্য ৩৩ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয় দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়। কিন্তু কোনও সুরক্ষার ব্যবস্থা না রেখে রাস্তার কাজ করায় তা দুই মাসেই নষ্ট হয়ে গেছে।

-------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : চট্টগ্রামে সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে বিআরটিএ’র ভ্রাম্যমাণ আদালত
-------------------------------------------------------

ভুক্তভোগীরা জানান, রাস্তা এখন এলোমেলো অবস্থা। আগে আমরা অনেক সুন্দরভাবে চলাচল করতে পারতাম। এখন আমাদের আরও অনেক সমস্যা হচ্ছে। রাস্তা যতটুকু ঠিক করার কথা ততটুকুও ঠিক করা হচ্ছে না। 

কিশোরগঞ্জ জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মো. মোকাররম হোসেন বলছেন, প্রকল্প নির্বাচন বা রাস্তা নির্মাণে অনেক কারিগরি ত্রুটি থাকায় এটি নষ্ট হয়ে গেছে। প্রকল্প নির্বাচন অনেক সময় চাপিয়ে দেয়া হয়। স্থানীয় জনসাধারণরে মতামত নিয়ে তাদের চাহিদা অনুযায়ী পিপি নেয়া উচিত। 

তবে, করিমগঞ্জ পিআইও অফিসের এক কর্মকর্তা জানান, রাস্তার সুরক্ষায় আলাদা কোনও বরাদ্দ না দেয়ায় রাস্তার এ বেহাল দশা।

আরও পড়ুন :

এসএস