• ঢাকা সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫

শ্বশুর কুরবানির গরু না পাঠানোয় স্ত্রীকে পিটিয়েছেন স্বামী

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি
|  ২৬ আগস্ট ২০১৮, ১৩:১২ | আপডেট : ২৬ আগস্ট ২০১৮, ১৩:২৮
ঈদ-উল-আজহায় শ্বশুরবাড়ি থেকে কুরবানির গরু না পাঠানোয় স্ত্রীকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে এক স্বামী।

ঈদের দ্বিতীয় দিন গেল শুক্রবার বিকেলে চট্টগ্রাম মহানগরের মিয়াখান নগরে এই ঘটনা ঘটে। আহত গৃহবধূর নাম দিনা আক্তার (২৫)। অভিযুক্ত স্বামীর নাম মো. ইলিয়াস।

এই ঘটনায় গৃহবধূর হাতের একটি আঙুল ভেঙে গেছে। তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে খবর জানাজানি হওয়ার পর থেকেই স্বামী ইলিয়াছ আত্মগোপনে চলে গেছেন। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে পুলিশ।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ-সিএমপির কোতোয়ালি জোনের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার জাহাঙ্গীর আলম বলেন, নির্যাতনের শিকার দিনা আক্তার নিজেই বাদী হয়ে শনিবার বিকেলে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। বিষয়টি পারিবারিক হওয়ায় পুলিশ সতর্কতার সঙ্গে দেখছে।

-------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : হিলি সীমান্তে বিজিবি-বিএসএফের ‘রাখিবন্ধন’
-------------------------------------------------------

গৃহবধূ দিনা বলেন, দেড় বছর আগে মিয়াখান নগরের মৃত মাইজ্জ্যা মিয়ার ছেলে ইলয়াছ ওরফে ডালিমের সঙ্গে সামাজিকভাবে তার বিয়ে হয়। বিয়ের সময় ইলিয়াছকে সংসারের যাবতীয় উপকরণ সব কিছুই দেয়া হয়েছে। তারপরও বিয়ের পর থেকে যৌতুকের জন্য চাপ দেয়।

তিনি বলেন, এই নিয়ে বিভিন্ন সময় তাকে মারধর করে সে। সংসারের কথা ভেবে সবকিছুই সয়ে যেতাম। তবে এবারের ঈদে কুরবানির জন্য গরু না দেয়ায় ঈদের দ্বিতীয় দিন আমাকে বেধড়ক মারধর করে এবং একপর্যায়ে হত্যার চেষ্টা চালায়।

দিনার স্বজনরা জানান, দিনাকে ইলিয়াছ বাড়িতে নেয়ার পর থেকেই যৌতুকের জন্য মারধর করে আসছে। দিনা প্রথমে আমাদেরকে বিষয়টি জানায়নি। এবার ঈদের দ্বিতীয় বেধড়ক মারধরের পর হত্যার চেষ্টা করছিল ইলিয়াছ।

তারা জানান, খবর পেয়ে পুলিশের সহায়তার উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছি। তার মুখ ও হাতে মারাত্মক জখম হয়েছে। হাতের একটি আঙ্গুল ভেঙে গেছে।

আরও পড়ুন : 

জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়