সোনাইমুড়ীতে ছুরিকাঘাতে যুবককে হত্যার অভিযোগ

প্রকাশ | ২৪ আগস্ট ২০১৮, ১৫:৩৮ | আপডেট: ২৪ আগস্ট ২০১৮, ১৫:৫৭

নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলায় এক যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে বজরা হাসপাতালে ওই যুবকের মৃত্যু হয়।

নিহত যুবকের নাম আব্দুল কুদ্দুস (২৬)। তিনি নাটেশ্বর ইউনিয়নের রামপাড়া গ্রামের ইদ্রিস মিয়ার ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আব্দুল কুদ্দুসের চাচাতো ভাইয়ের সঙ্গে পাশের বাড়ির নূর ইসলামের ছেলে দ্বীন ইসলাম ইমনের মামাতো বোনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে পারিবারিক কলহের কারণে ইমনের মামাতো বোন তার বাবার বাড়িতে চলে যায়। এ নিয়ে একাধিকবার গ্রামে সালিশও হয়। এ নিয়ে কিছুদিন থাকার পর পুনরায় শ্বশুর বাড়ি থেকে চলে যায় ইমনের মামাতো বোন।

-------------------------------------------------------
আরও পড়ুন :আন্তনগর ট্রেনের টিকিটসহ ২ কালোবাজারী আটক
-------------------------------------------------------

এসব ঘটনার জের ধরে ইমন ও কুদ্দুসের মধ্যে কয়েক দফা বাক-বিতণ্ডা হয়। এর সূত্র ধরে বৃহস্পতিবার রাতে কুদ্দুস তার লোকজন নিয়ে ইমনদের বাড়িতে হামলা চালায়। এসময় ইমন তার চাচার ঘরে ছিলেন। কুদ্দুস ওই ঘরে গিয়ে ইমনকে মারধর শুরু করলে একপর্যায়ে ইমন একটি ছুরি দিয়ে কুদ্দুসের পেটে মেরে পালিয়ে যান। পরে স্থানীয় লোকজন কুদ্দুসকে উদ্ধার করে বজরা হাসপাতালে ভর্তি করলে হাসপাতালে কুদ্দুসের মৃত্যু হয়।

সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাছিম উদ্দিন জানান, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনায় স্থানীয় লোকজন এক যুবককে ধরে পুলিশে দিয়েছে। 

তিনি আরও জানান, ঘটনায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে। অভিযুক্ত ইমনকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

আরও পড়ুন :

জেবি